সংবাদ শিরোনাম
বিজয়নগরে আগামী ৭ মার্চ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রথমবারের মত মুদ্রণশিল্প মালিকদের পরিবেশ অধিদপ্তরের নিবন্ধন ওপারে চলে গেলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম দ্বিতীয়বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হওয়ায় নায়ার কবিরকে বিভিন্ন মহলের ফুলেল শুভেচছা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রুবেলের গাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা ও ভাংচুর।। আহত-০২।। গ্রেপ্তার -০২ বীর মুক্তিযোদ্ধা হুমায়ুন কবির খান স্মৃতি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় মেয়াদ মেয়র নির্বাচিত হওয়ায় নায়ার কবিরকে বিজয়নগর যুবলীগসহ বিভিন্ন সংগঠন ও বিশিষ্টজনদের ফুলেল শুভেচ্ছা অব্যাহত এবার কাউন্সিলর হিসেবে ইন ও আউট হলেন যারা নাছিমার সাথে দ্বন্দ্বে ৮ মাস না পেরোতেই বান্দরবান বদলী বিজয়নগরের ইউএনও আরাফাত নাসিরনগরে অগ্নিকান্ডে দুটি ঘর পুড়ে ভষ্মীভূত।। সাংসদের দুঃখ প্রকাশ ও আর্থিক সহায়তা প্রদানের আশ্বাস
মেঘনার ক্রমাগত ভাঙনে নাসিরনগরের চাতলপাড় হুমকির মুখে

মেঘনার ক্রমাগত ভাঙনে নাসিরনগরের চাতলপাড় হুমকির মুখে

স্টাফ রিপাের্টার//সময়নিউজবিডি  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলায় মেঘনার ভাঙ্গনে হুমকির মুখে পড়েছে উপজেলার চাতলপাড় ইউনিয়নের তিনশ বছর পুরনাে চকবাজার, চাতলপাড় ও বিলেরপাড়ের বসতভিটা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান। বিলীনের পথে রয়েছে বিলপাড়ের ৩০বছর পুরনাে একটি মসজিদ। গত কয়েক বছর ধরেই মেঘনার ভাঙ্গনে ব্যবসায়ী ও গ্রামবাসীরা আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন। 
এলাকাবাসী জানান, গত তিন বছর ধরে উপজেলার চাতলপাড় ইউনিয়নের চাতলপাড়, উপজেলার শত বছর পুরনাে চকবাজার ও বিলেরপাড় মেঘনার ভাঙ্গনের কবলে পড়েছে। নদীর তীরবর্তী চকবাজারর ৫০টি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান ও চাতলপাড়র ৫০/৬০টি বসতভিটা, বিলরপাড়র ১০-১২জনর বসতভিটাসহ জায়গা জমি  নদী গর্ভ বিলীন হয় গছ। ঝুঁকিত  রয়ছ চাতলপাড়, চকবাজার ও বিলরপাড়র আরা শতাধিক ভবন। 
নদীর ওপারে হাওরের উপর দিয়ে কিশারগঞ্জ জেলার অষ্টগ্রাম উপজেলায় সড়ক নির্মাণ, চকবাজারের অনতিদূরে জেগে উঠা চর ও একটি ইটভাটার কারণে তীব্র স্রােতের গতি পরিবর্তন এমন অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। চাতলপাড়, চকবাজার ও বিলেরপাড়ের মানুষের বাড়িঘর, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, বাজার, মসজিদ, মন্দিরের অস্তিত্ব এখন নদীতে হারিয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। পাড় ভাঙ্গতে ভাঙ্গতে এমন অবস্থা হয়েছে যে, বিলপাড় জামে মসজিদের উত্তর দিকের চারটি স্তম্ভর (পিলার) নিচের মাটিও নদীতে চলে গেছে। যে কােনা মুহুর্তে মসজিদটি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে।চাতলপাড়ের অস্তিত্ব্ব বাঁচাতে দ্রুত কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহন করতে  সরকার ও সংশ্লিষ্ট দপ্তরের সহায়তার দাবি করেন ইউনিয়নবাসী।বিলেরপাড় জামে মসজিদের ইমাম আব্দুল আহাদ বলেন, পাড় ভাঙ্গতে ভাঙ্গতে মসজিদের পিলারের নিচের মাটিও সরে গেছে। মসজিদের উত্তরদিকে ৩০০ফুট জায়গা ছিল। সবই নদীতে মিশে গেছে। মসজিদ, মসজিদ সংলগ্ন নূরনিয়া মাদরাসা ও  গ্রামের মানুষের বাড়িঘর এখন হুমকির মুখে। 
বিলেরপাড়ের বাসিন্দা, ঢাকা গুলশান কমার্স কলেজের বাংলা বিষয়ের প্রভাষক শরীফ উদ্দিন বলেন, মসজিদের উত্তরদিকে প্রতি বছর মাহফিল হতাে। সেখানে হাজার হাজার মানুষ জড়াে হতাে। এই মসজিদটি এখন হুমকির মুখে।   চাতলপাড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ আব্দুল আহাদ বলেন, তিন বছর ধরেই ইউনিয়নের শত বছর পুরনাে চকবাজার, চাতলপাড় ও বিলেরপাড় ভাঙ্গণ অব্যাহত রয়েছে। নদী খননের কারণে নদীর উত্তরদিকের চারভাগের তিনভাগ মাটি ভরাট হয়ে নতুন করে চর উঠেছে। উত্তরদিকে একটি ইটভাটও রয়েছে। চর বাড়ছে, ইটভাটার পরিমানও বাড়ছে। 
এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পানি উন্নয়ন বাের্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী (অতিরিক্ত দায়িত্ব) রঞ্জন কুমার দাস  বলেন, ভাঙ্গণরােধে আমরা প্রকল্প তৈরি করে সংশ্লিষ্ট বিভাগে জমা দিয়েছি।
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।     

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com