সংবাদ শিরোনাম
অবশেষে দলীয় মনোনয়ন বাতিল হলো নাসিরনগরে সাম্প্রদায়িক হামলা মামলার চার্জশীটভুক্ত দুই আসামীর আগামী শনিবার জেলা আ’লীগের উপদেষ্টামন্ডলী ও সম্পাদকমন্ডলীর যৌথসভা রাস্তায় শ্রমিক হয়রানী ও নির্যাতন বন্ধসহ রিক্সা ও ইজিবাইকের লাইসেন্স নবায়ন দাবী বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের  সরাইলে শেখ রাসেল দিবস উপলক্ষে বক্তৃতা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পৃথক স্থানে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু   নাসিরনগরে সাম্প্রদায়িক হামলা মামলার চার্জশীটভুক্ত দুই আসামী পেলেন চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের মনোনয়ন।। তৃণমূলে অসন্তোষ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তরুণীকে অপহরণের ঘটনার মূল হোতা ঢাকায় গ্রেফতার  কারিগরি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বেকার যুবকদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে উন্নত বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে ; উপসচিব নাজমা বেগম  বিজয়নগরে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ।। মামলা তুলে নিতে আসামীদের হুমকি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রাফিক পুলিশকে পিটিয়েছে এক তরুণ।। তবে কেন এ হামলা জানা নেই কারো
পাকিস্তান বাহিনীর প্রথম বাঙালিনিধন অভিযানটি পরিচালিত হয় ‘অপারেশন সার্চলাইট’ নামে ; উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি

পাকিস্তান বাহিনীর প্রথম বাঙালিনিধন অভিযানটি পরিচালিত হয় ‘অপারেশন সার্চলাইট’ নামে ; উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি

স্টাফ রিপোর্টার//সময়নিউজবিডি 

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা র. আ. ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি বলেছেন, বাংলাদেশের মাটিতে যে হত্যাযজ্ঞ চালানো হয়েছিল, তা ছিল বিংশ শতাব্দীর নৃসংশতম গণহত্যা। ১৯৭১ সালের মার্চ মাসের ২৫ তারিখ থেকে ৮ মাস ২ সপ্তাহ ৩ দিনের এই গণহত্যার স্বরূপ ছিল ভয়ঙ্কর। পরিকল্পিতভাবে বাঙালিকে খুন করা হয়েছে, গণহারে নারীদের উপর পাশবিক নির্যাতন চালানো হয়েছে, ঘরবাড়িতে আগুন দেওয়াসহ অপহরণ, গুম ও বর্বর শারীরিক নির্যাতন চালানো হয়েছে। এসব হামলার সহযোগী ছিল বাঙালি ও অবাঙালি সমন্বয়ে গঠিত রাজাকার, আল বদর, আল শামস ও শান্তি কমিটির সদস্যরা। পাকিস্তান বাহিনীর প্রথম বাঙালিনিধন অভিযানটি পরিচালিত হয় ‘অপারেশন সার্চলাইট’ নামে।পাকিস্তানীরা একাত্তরে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষকে নির্বিচারে হত্যা করে শুধু মাটি চেয়েছিলো। ইয়াহিয়া- ভূট্টো-টিক্কা খানেরা যে অমানুষের পরিচয় দিয়েছে তা বাঙ্গালীরা কখনো ভুলে যাবে না। ২৫ মার্চের পর থেকে মহান মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশে বর্বর গণহত্যার চালানোর জন্য পাকিস্তানীদের অবশ্যই ক্ষমা চাইতে হবে। তিনি আরো বলেন, মোমবাতি প্রজ্জলনের মাধ্যমে ২৫ মার্চের বর্বর গণহত্যার শিকার বীর বাঙ্গালীদের স্মরণ করার মাধ্যমে নতুন প্রজন্মের কাছে গণহত্যার ইতিহাস তুলে ধরতে হবে।
বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) সন্ধ্যায় জেলা শহরের বঙ্গবন্ধু স্কয়ারে ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস উপলক্ষে শহীদদের স্মরণে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসন আয়োজিত মোমবাতি প্রজ্জলন ও স্মৃতিচারণামূলক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

জেলা প্রশাসক হায়াত উদ-দৌলা খাঁন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জেলা পুলিশের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান, পৌর মেয়র মিসেস নায়ার কবির, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক পৌর চেয়ারম্যান যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার ও মুক্তিযুদ্ধকালীন ভারতের মেঘনা প্রদেশের মুক্তিযোদ্ধা প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের ইনচার্জ বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট হামিদুর রহমান -০১, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আবুল কালাম ভুইয়া।

উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি হাজী মোঃ হেলাল উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম মহিউদ্দিন খান খোকন, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি  বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আবুল কালাম ভুইয়া, সাধারন সম্পাদক এম এ এইচ মাহবুব আলম, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট লোকমান হোসেন, সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত সহ জেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা প্রমুখ।
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর। 

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com