সংবাদ শিরোনাম
নাছিমার সাথে দ্বন্দ্বে ৮ মাস না পেরোতেই বান্দরবান বদলী বিজয়নগরের ইউএনও আরাফাত নাসিরনগরে অগ্নিকান্ডে দুটি ঘর পুড়ে ভষ্মীভূত।। সাংসদের দুঃখ প্রকাশ ও আর্থিক সহায়তা প্রদানের আশ্বাস অনিয়ম দূর্নীতি প্রতিরোধে বিপুল ভোটে বিজয়ী নায়ার।। পৌরবাসীর নিরব ভোট বিপ্লব দ্বিতীয় বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হলেন আ’লীগ মনোনীত নায়ার কবির বাঞ্ছারামপুরে মাকে খুন করলেন মাদকাসক্ত মেয়ে উৎসবমুখর পরিবেশে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শুরু ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সেফটিক টাঙ্কি বিস্ফোরণে দেয়াল ভেঙ্গে আহত- ৫।। এলাকায় আতঙ্কের সৃষ্টি।। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি দিনশেষে রাত পোহালেই ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভোট উৎসব।। শান্তি প্রতিষ্ঠাই হচ্ছে ভোটারদের লক্ষ্য ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জাতীয় বিজ্ঞান বিতর্ক উৎসব প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর নির্বাচনে কোন কেন্দ্রে চুরি-ছিনতাইকারী সন্ত্রাস চাঁদাবাজ ও অস্ত্রবাজকে ঢুকতে দেওয়া হবে না ; নায়ার-মামুন
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তিন ইতালি প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তিন ইতালি প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে

স্টাফ রিপোর্টার//সময়নিউজবিডি ইতালি থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার তিন প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখেছেন স্বাস্থ্য বিভাগ। প্রাথমিক নিরীক্ষায় তাদের মধ্যে করোনাভাইরাসের কোন লক্ষণ পাওয়া যায়নি বলে নিশ্চিত করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ শাহ আলম। জনসাধারণের মধ্যে যাতে কোন আতঙ্ক না ছড়ায় সে বিবেচনায় তাদের পরিচয় গোপন রেখেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। 
গত তিনদিন আগে ইতালি থেকে দেশে আসেন এ তিন ব্যক্তি। তারা জেলার আখাউড়া উপজেলার বাসিন্দা। 
জানা যায়, গত তিনদিন আগে ইতালি থেকে দেশে আসেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার তিন ইতালি প্রবাসী। দেশে আসার পরেই জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে তাদেরকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেন। স্বাস্থ্য বিভাগ বলছে হোম কোয়ারেন্টাইনে তারা সুস্থ্য আছেন। তবে এখনও পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কোথাও কোন করোনাভাইরাসের রোগী পাওয়া যায়নি।
এদিকে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের করোনাভাইরাস প্রতিরোধে প্রস্তুতি হিসেবে জেলা সদর হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গুলোতে আইসোলেশন ওয়ার্ড চালু করা হয়েছে। যার অংশ হিসেবে ইতিমধ্যে বিজয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটিকে কোয়ারান্টাইন হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। সে জন্য কমপ্লেক্সটির নারী ও পুরুষ ওয়ার্ডটি প্রস্তুত রাখা হয়েছে। করোনাভাইরাস আক্রান্ত বা করোনার লক্ষণ আছে এমন রোগীদের এখানে রেখে পর্যবেক্ষণ করা হবে। 
তবে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরকারি বেসরকারি কোন হাসপাতালে করোনাভাইরাস পরীক্ষার কোন যন্ত্রপাতি নেই বলে জানিয়েছেন জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। কারো মধ্যে করোনাভাইরাসের লক্ষণ দেখা দিলে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) এ পাঠানো হবে।   
এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ শাহ আলম জানান, ইতালি থেকে দেশে আসার পর তিন প্রবাসীকে আমাদের মেডিকেল টিমের সদস্যরা বুঝিয়ে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তবে তাদের কারোরই করোনাভাইরাস নেই। তারা এখানে সুস্থ্য আছেন।      
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।                                                          

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com