সংবাদ শিরোনাম
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কাশবনে ঘুরতে গিয়ে শ্লীলতাহানির শিকার এক তরুণী ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে কসবায় ৯ জনকে জরিমানা আলাউদ্দিন জিহাদীর মুক্তির দাবিতে নাসিরনগরে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে বিজয়নগরে সপ্তাহব্যাপী ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধন সরাইলে যুবদলের পদ দখল করতে চান দুই’ বিএনপি নেতা আগামীকাল বিজয়নগরে বিভিন্ন কর্মসূচির উদ্বোধন করবেন মোকতাদির চৌধুরী এমপি ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের নব-নির্বাচিত কমিটিকে পৌর মেয়র নায়ার কবিরের অভিনন্দন দু’পক্ষের ঝগড়া থামাতে গিয়ে কসবায় লাঠির আঘাতে গৃহবধূ নিহত সরাইলে পর্নোগ্রাফির অভিযোগে ২ যুবক গ্রেপ্তার আলহামদুল্লিলাহ-মহান আল্লাহতায়ালার কাছে শুকরিয়া
নাসিরনগরে সৌদি ফেরৎ গৃহকর্মীর লাশ পেয়ে বাড়িতে শোকের মাতম

নাসিরনগরে সৌদি ফেরৎ গৃহকর্মীর লাশ পেয়ে বাড়িতে শোকের মাতম

নাসিরনগর প্রতিনিধি 

সংসারের অভাব গোঁছাতে কিশোরীকে পাঠিয়েছিল সৌদি আরব। স্থানীয় দালাল আব্দুর রাজ্জাক বলেছিল তাকে ভাল বেতন দেয়া হবে। অবশেষে বেতনে  পরিবর্তে ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০ রোজ শনিবার রাত্র দেড় ঘটিকায় সময় লাশ হয়ে দেশে ফিরল কিশোরী। লাশ পেয়ে বাড়ীতে এখন চলছে শোকের মাতম। কিশোরীর মা বাবা আর আত্মীয় স্বজনের কান্নায় ভারী হয়ে উঠছে আকাশ বাতাশ। ঘটনাটি ঘটেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার গোকর্ণ ইউনিয়নের নূরপুর গ্রামে। জানা গেছে, নূরপুর গ্রামের শহিদুল ইসলাম ও নাসিমা বেগমের অবিবাহিত মেয়ে উম্মে কুলসুমকে প্রতিবেশী দালাল রেম্বর আলীর ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (৩৫) এর মাধ্যমে মেসার্স এমএইচ ট্রেড এন্টারন্যাশনাল (আরএল নং-১১৬৬),ফকিরাপুল, ঢাকা এর মাধ্যমে গৃহকমর্ী হিসেবে সৌদি আরবে পাঠানো হয়। যার পাসপোর্ট নং-ইএ ০০৫০৭৭৯।  গত ১৭ আগষ্ট ২০২০ তারিখে জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক বরাবরে  উম্মে কুলসুমের পিতা শহিদুল ইসলামের লিখিত অভিযোগে জানা গেছে, তার মেয়ে মারাত্বক শারীরিক, মানসিক ও যৌন নির্যাতনের শিকার হয়ে মৃত্যুবরণ করেছে। অভিযোগে তিনি তার মেয়ের বকেয়া আট মাসের বেতন ও লাশ বাংলাদেশে ফেরৎ এনে রিক্রুটিং এজেন্সীর বিরুদ্ধে শান্তিমূলক ব্যবস্থার আবেদনও জানান তিনি। গত ২৪ জুন ২০২০ তারিখে উম্মে কুলসুমের মা নাসিরনগর থানার সাধারণ ডায়েরী নং ৮৩৪ এ জানা গেছে প্রতিবেশী দালাল আব্দুর রাজ্জাক ২০১৯ সালের ৭ এপ্রিল তার মেয়েকে গৃহ কমর্ীর কাজ দিয়া সৌদি আরবের রিয়াদে পাঠায়। সেখানে তার মেয়ে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের শিকার হয়। এ খবর দালালরা রাজ্জাককে জানানোর পর সে উম্মে কুলসুমকে ওই বাসা থেকে অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে দিবে বলে আবারও তাদের কাছ থেকে টাকা নেয়। পরবতর্ীতে এ কথা কাউকে জানালে, তাদের প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দেয়। সৌদি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাড়ীতে এক ভিডিও কলে শোনা যাচ্ছে উম্মে কুলসুম তার মা বাবা আত্মীয় স্বজনকে বলেছে গৃহকর্তা তাকে শারীরিক ও মানসিক ভাবে প্রচন্ড মারপিট ও  নির্যাতন করায় উম্মে কুলসুম নিরুপায় হয়ে পঙ্গু অবস্থায় বাসা থেকে পালিয়ে গিয়ে সৌদি পুলিশের মাধ্যমে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ভিডিও চিত্রে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্নও দেখা গেছে। ঘটনার পর থেকে দালাল পলাতক রয়েছে। 
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com