সংবাদ শিরোনাম
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কারাগারে কয়েদির মৃত্যু  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীকে হত্যার অভিযোগ।। স্ত্রী আটক ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নিখোঁজ গৃহবধূর মরদেহ ভেসে উঠলো পুকুরে পৌরসভার উন্নয়ন কর্মকান্ড ত্বরান্নিত করতে সকলে আন্তরিকতার সহিত কাজ করতে হবে; পৌর মেয়র নায়ার কবির  কমলগঞ্জে মনু দলই ভ্যালী কর্তৃক চা শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত।  বিদেশে সুনামের পর বাংলা টিভি বাংলাদেশে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে; প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী অনুষ্ঠানে বক্তারা জনশুমারী ও গৃহগণনা সঠিকভাবে নিশ্চিত করা হলে বিভিন্ন ক্ষেত্রে তা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে; পৌর মেয়র নায়ার কবির আশুগঞ্জে র‍্যাবের অভিযানে গাঁজাসহ তিন মাদক কারবারি আটক  কমলগঞ্জে ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাত নারীর মৃত্যু  পৌরসভার ইমারত নির্মাণ অনুমোদন ও ভবনের গুণগতমান নিশ্চিতকরণ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাথার খুলি ও মগজ বিহীন এক শিশুর জন্ম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাথার খুলি ও মগজ বিহীন এক শিশুর জন্ম

মতিউর মুন্না//সময়নিউজবিডি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে মাথার খুলি বিহীন এক কন্যা শিশুর জন্ম দিয়েছেন এক মা।

সোমবার (২৪ মে) বিকেলে জেলা সদর হাসপাতালে স্বাভাবিকভাবে এ কন্যা শিশুর জন্ম হয়। তবে শিশুর মা সুস্থ থাকলেও অসুস্থ রয়েছেন সদ্য জন্ম নেওয়া এ শিশুটি।
হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, জেলার নাসিরনগর উপজেলার গোয়ালনগরের শহীদ মিয়ার মেয়ে তানজিনা বেগমের সাথে দুই বছর আগে একই উপজেলার ভলাকুট গ্রামের মৃত সফিল উদ্দিনের ছেলে জসিম উদ্দিনের বিয়ে হয়। এক বছর আগে তানজিনা গর্ভবতী হন। এরপর থেকে তানজিনা বিভিন্ন গাইনী চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা নিয়েছেন। তানজিনার যখন অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার সাত মাস পূর্ণ হয় তখন এক গাইনি চিকিৎসক একটি আল্ট্রাসনোগ্রাফি করে জানান, জন্ম নিতে যাওয়া শিশুটি শারীরিকভাবে অসুস্থ হবে। এমনকি তার মাথার খুলি হবে না। চিকিৎসকের একথা শুনেও তানজিনার শ্বশুর বাড়ির লোকজন তা আমলে নেননি। সোমবার বিকেলে তানজিনার প্রসব ব্যথা শুরু হলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন।
পরে জেলা সদর হাসপাতালের গাইনি বিভাগে স্বাভাবিকভাবেই মাথার খুলি ও মগজ বিহীন এ কন্যা শিশুটির জন্ম হয়।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের গাইনি বিভাগের চিকিৎসক মাহফিদা আক্তার হ্যাপী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মাথার খুলি ও মগজ বিহীন এ কন্যা শিশুটির জন্ম দেন তানজিনা। এভাবে জন্ম নেওয়া শিশুদের এনেনসেফ্যালি বলা হয়। এসব শিশু সর্বোচ্চ ৪৮ ঘন্টা পর্যন্ত বেঁচে থাকে। তিনি বলেন, ফলিক এসিডের অভাবে শিশুটির জন্মগত এ রোগ হয়েছে। তবে শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com