সংবাদ শিরোনাম
কমলগঞ্জে সোনালী ব্যাংক এর এজেন্ট ব্যাংকিং উদ্বোধন কমলগঞ্জের মুফতি ইমাম উদ্দিন সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ঠ ইমাম ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শেখ কামাল আন্তঃ স্কুল ও মাদ্রাসা এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ফের সকল আদালত বর্জনের ঘোষণা ব্রাহ্মণবাড়িয়া আইনজীবী সমিতির কমলগঞ্জের আদমপুরে মিনি নাইট ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন ইসলামপুর কাজী রফিকুল ইসলাম স্কুল এন্ড কলেজে নবীণবরন অনুষ্ঠিত শোক সংবাদ: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কৃতি সন্তান সংগীত পরিচালক আনোয়ার জাহান নান্টুর ইন্তেকাল ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রাক্তন স্কাউটস এর পূর্নমিলনীর লক্ষ্যে আহবায়ক কমিটি গঠন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিজিবির অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদক উদ্ধার তরুণ প্রজন্মকে দেশপ্রেমিক ও আর্দশ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে পারে কেবলমাত্র বই; ডিসি শাহগীর আলম

গাজী মাজহারুল আনোয়ারের মৃত্যুতে সাহিত্য একাডেমি ও সম্মিলিত সাংবাদিক ইউনিয়নের শোক

গাজী মাজহারুল আনোয়ারের মৃত্যুতে সাহিত্য একাডেমি ও সম্মিলিত সাংবাদিক ইউনিয়নের শোক

Advertisements

জয় বাংলা বাংলার জয়- কালজয়ী গানের রচয়িতা, কিংবদন্তী গীতিকার, চিত্রনাট্যকার, সুরকার, প্রযোজক ও পরিচালক বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত গাজী মাজহারুল আনোয়ারের আর বেঁচে নেই।
গত ৪ সেপ্টেম্বর রবিবার ভোরে তিনি বার্ধক্যজনিত কারণে রাজধানী ঢাকার হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃত্যু বরণ করেন। সাহিত্য একাডেমির সভাপতি কবি জয়দুল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক নূরুল আমিন গাজী মাজহারুল আনোয়ারের মৃতুতে গভীর শোক প্রকাশ করেন। তারা বলেন, মহান স্বাধীনতার সময় মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে গান রচনা করে তাঁদেরকে স্বাধীনতা যুদ্ধে উদ্বুদ্ধ করেন। তাঁর মৃত্যুতে জাতির অনেক অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে গেলো।
গাজী মাজহারুল আনোয়ার ছিলেন একজন বাংলাদেশি চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক, রচয়িতা, গীতিকার ও সুরকার। স্বাধীনতা ও দেশপ্রেম নিয়ে তিনি অসংখ্য শ্রোতাপ্রিয় গান লিখেছেন। তিনি ২০০২ সালে বাংলাদেশের একুশে পদক এবং ২০২১ সালে স্বাধীনতা পুরস্কার লাভ করেন। ২০ হাজারের বেশি গান রচনা করেছেন তিনি।
গাজী মাজহারুল আনোয়ার ১৯৪৩ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লার দাউদকান্দি থানার তালেশ্বর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ২০ হাজার গানের রচয়িতা গাজী মাজহারুল আনোয়ার ১৯৬৪ সাল থেকে রেডিও পাকিস্তানে গান লেখা শুরু করেন। পাশাপাশি বাংলাদেশ টেলিভিশনের জন্মলগ্ন থেকেই নিয়মিত গান ও নাটক রচনা করেন। প্রথম চলচ্চিত্রের জন্য গান লেখেন ১৯৬৭ সালে আয়না ও অবশিষ্ট চলচ্চিত্রের জন্য। ১৯৬৭ সালে চলচ্চিত্রের সাথে যুক্ত হওয়ার পর থেকে কাহিনী, চিত্রনাট্য, সংলাপ ও গান লেখাতেও দক্ষতা দেখান তিনি। তার পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র নান্টু ঘটক ১৯৮২ সালে মুক্তি পায়। তার পরিচালিত চলচ্চিত্রের সংখ্যা ৪১ টি।
এদিকে, প্রখ্যাত গীতিকার মাজহারুল আনোয়ারের মৃত্যুতে শোক ও সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সম্মিলিত সাংবাদিক ইউনিয়ন।
সম্মিলিত সাংবাদিক ইউনিয়নে সভাপতি হাবিবুর রহমান পারভেজ ও সাধারণ সম্পাদক মাসুক হৃদয় গাজী মাজহারুল আনোয়ারের মৃতুতে গভীর শোক প্রকাশ করেন। তারা বলেন, গীতিকার মাজহারুল আনোয়ারের অবদান অনস্বীকার্য। তিনি আমাদের অমূল্য সম্পদ ছিলেন। তাঁকে হারিয়ে আমরা নির্বাক। আমরা তাঁর আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি।
তিনি একুশে পদক, স্বাধীনতা পদক, ৬ বার চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। এমন গুণী ব্যক্তিত্ব আমরা আর পাব না। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com
Translate »