সংবাদ শিরোনাম
মৌলভীবাজারে আশার শাখা ব্যবস্থাপকদের অর্ধ-বার্ষিক সমন্বয় সভা বকেয়া বেতন ভাতাসহ বিভিন্ন দাবীতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে শিক্ষকদের মানববন্ধন কমলগঞ্জে জলাশয় থেকে নারীর লাশ উদ্ধার ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিশ্ববিদ্যালয়’র ২২১ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টশন অনুষ্ঠিত বিজয়নগরে ভেন্টিলেটর ভেঙে দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি তৈমুরকে হারিয়ে তৃতীয় মেয়াদে নারায়ণগঞ্জ সিটি মেয়র নির্বাচিত হলেন আইভী বিজয়নগরে এক প্রবাসীর বাড়িতে হামলা ভাংচুর ও লুটপাট।। আহত- ৬ কমলগঞ্জে অগ্নিকান্ডে দশ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি।। ফায়ার সার্ভিসের অবহেলার অভিযোগ সরাইলে বন্ধু ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে কম্বল বিতরণ বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার সম্মেলন অনুষ্ঠিত
দলের বিরোধিতাকারীদের নেতা বানানো হবেনা; মোকতাদির চৌধুরী এমপি

দলের বিরোধিতাকারীদের নেতা বানানো হবেনা; মোকতাদির চৌধুরী এমপি

স্টাফ রিপোর্টার // সময়নিউজবিডি     

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক একান্ত সচিব বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি বলেছেন, দলের বিরোধিতাকারীদের নেতা বানানো হবেনা। গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে এখানে উপস্থিত অনেককেই আমি বিভিন্নভাবে ডেকে নিয়ে অনুরোধ করে বলেছি দলের নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষে কাজ করার জন্য কিন্তু আপনাদের অনেকেই আমার অনুরোধ রাখেননি। আপনারা আপনাদের নিজেদের মতো করেই কাজ করেছেন। আপনারা যারা শেখ হাসিনার নৌকা প্রতীকের বিপক্ষে কাজ করেছেন, আমার অনুরোধও রাখেননি তাহলে আপনারা কিভাবে ভাবছেন আমার স্বাক্ষরে অনুমোদিত কমিটিতে আপনাদের রাখবো। লাজ সরম থাকলে নিজ থেকেই সরে যান।                  
শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে চম্পকনগর স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
মোকতাদির চৌধুরী এমপি বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্ব দরবারে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। 


বিজয়নগর উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীর বিরোধিতাকারীদের উদ্দেশ্য করে মোকতাদির চৌধুরী আরো বলেন, ‘নির্বাচনে নৌকার জন্য কতজনকে অনুরোধ করেছি, ওই লোকগুলোর লজ্জা হওয়া উচিত। অন্তত একটু অনুতপ্ত হইয়েন। দলের যেসব নেতাকর্মী দিনের বেলায় নৌকা আর রাতে ঘোড়া প্রতীকের সমর্থন করেছেন তারা সাবধান হয়ে যান।
নেতাকর্মীদের প্রতি প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, নির্বাচনের সময় দল না করলে কখন করবেন? যারা নির্বাচনে বিরোধিতা করেছিলেন তাদের সবাইকে আমরা চিনি। তারা একজনও কমিটিতে থাকবে না। 

তিনি বলেন, আজকে হাজার হাজার লোক স্লোগান দিচ্ছেন, আপনারা নির্বাচনের দিন কোথায় ছিলেন? যদি নৌকার জন্য খেটে থাকেন তাহলে কোথায় গেলো ভোট? নিজেকে নিজে প্রশ্ন করেন। দিনেরবেলা নৌকা আর রাতেরবেলা ঘোড়া? সবাই নৌকা মার্কার সমর্থক কিন্তু ভোটের বাক্সে ঘোড়া।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ সদস্য জহিরুল ইসলাম ভুইয়ার সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম মৃধার পরিচালনায় সম্মেলনে সাংগঠনিক রিপোর্ট পেশ করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট তানভীর ভুইয়া।

সম্মেলনে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখছেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সাবেক পৌর চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার।

সম্মেলনে প্রধান বক্তার বক্তব্যে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সাবেক পৌর চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার বলেন, যোগ্যতার ভিত্তিতে এবার নেতা নির্বাচিত করা হবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও শেখ হাসিনার নির্দেশ যিনি পালন করতে পারবে তাদেরকেই নেতা হিসেবে নির্বাচিত করা হবে।   
সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামীলীগের জাতীয় পরিষদ সদস্য আলহাজ্ব আবুল কালাম ভুইয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি হাজী মোঃ হেলাল উদ্দিন, মুজিবুর রহমান বাবুল, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি মঈন উদ্দিন মঈন, গোলাম  মহিউদ্দিন খান খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহবুবুল আলম খোকন, শাহ আলম সরকার। 

সম্মেলনে উপস্থিতির একাংশ।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক চৌধুরী আফজাল হোসেন নিছার, তথ্য ও গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ মিজানুর রেজা, প্রচার প্রকাশনা সম্পাদক সৈয়দ   নজরুল ইসলাম, উপ- দপ্তর সম্পাদক মোঃ মনির হোসেন, জেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহানুর ইসলাম, সাধারন সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম ফেরদৌস, জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ লোকমান হোসেন, সাধারন সম্পাদক এম সাইদুজ্জামান আরিফ, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য মেহেদি হাসান লেনিন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল, সাধারন সম্পাদক শাহাদাত হোসেন শোভন, সদর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আলী আজম, সাধারন সম্পাদক জসিম উদ্দিন রানা, বিজয়নগর উপজেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রফিকুল ইসলাম মাস্টার, সাধারন সম্পাদক হাজী মোঃ রাসেল খান, প্রচার প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ এনামুল হক খোকন, উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক ইছাপুরা ইউপি চেয়ারম্যান জিয়াউল হক বকুল, যুগ্ম আহবায়ক সুনির্মল সাহা, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহবুব হোসাইন, সাধারন সম্পাদক শফিকুল ইসলাম রাজবি সহ আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।
এদিকে প্রথম অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা আওয়ামীলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষনা করেন মোকতাদির চৌধুরী এমপি। 

সম্মেলনে উপস্থিতির একাংশ।

পরে দ্বিতীয় অধিবেশনের জন্য চম্পকনগর স্কুল এন্ড কলেজের একটি ভবনে বসলেও নতুন কমিটি গঠন ও নেতা নির্বাচনে কি আলোচনা হয়েছে তা জানা যায়নি।

অপরদিকে, সম্মেলনের শুরুতেই দলীয় ও জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে প্রধান অতিথি ও প্রধান বক্তা সম্মেলনের শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করেন।


ইনাম/সময়নিউজবিডি টোয়েন্টিফোর।                                                                                                                                                                       

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com