সংবাদ শিরোনাম
ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়া-র বোর্ড অব ট্রাস্টিজের ৩০তম সভা অনুষ্ঠিত ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়া’র ব্যাচ ২১২ শিক্ষার্থীদের নবীনবরণ অনুষ্ঠিত ছাত্র মৈত্রীর সচিবালয় ঘেরাও কর্মসূচীতে পুলিশী হামলার প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়া যুব মৈত্রীর বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ  খুলতে শুরু করেছে নাসিরনগরে রহমত আলী হত্যা মামলার জট নাসিরনগরে চকলেট ভেবে ইঁদুরের ঔষধ খেয়ে শিশুর মৃত্যু  সরাইলে পোল্ট্রি খামারিদের নিয়ে আনোয়ার শীটের ৬০ জন প্রশিক্ষণ কর্মশালা বিজয়নগরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে একজন নিহত  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জাতীয় অন্ধকল্যাণ সমিতির সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত।। ডিসেম্বরে সপ্তাহব্যাপী চক্ষু চিকিৎসা শিবির আনন্দের ইশকুল,নিরাপদ ইশকুল।। স্বাস্থ্যসম্মত পরিবেশে চলছে কমলগঞ্জের ১৫২টি প্রাইমারী স্কুল  বিজয়নগরে নৌ-দূর্ঘটনায় নিহত মেডিকেল শিক্ষার্থী আরিফ বিল্লাহ’র ভর্তি ফি ফেরত 
আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আ’লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার বিবাহ বার্ষিকী

আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আ’লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার বিবাহ বার্ষিকী

সময়নিউজবিডি রিপোর্ট

আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আওয়ামীলীগ সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বিবাহ বার্ষিকী। ১৯৬৭ সালের ১৭ নভেম্বর বিখ্যাত পরমাণু বিজ্ঞানী মরহুম ড. এমএ ওয়াজেদ মিয়ার সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন জাতির জনক ও বঙ্গবন্ধু কন্যা বর্তমান সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
শেখ হাসিনা ওয়াজেদ বর্তমানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি। তিনি ১৯৭৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি সম্পন্ন করেন। স্নাতকের ছাত্রী থাকা অবস্থাতেই ১৯৬৭ সালে তাঁর বিয়ে হয়।

জন্মদিনে শেখ হাসিনাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন তাঁর স্বামী ড. এমএ ওয়াজেদ মিয়া। ফাইল ছবি।

ড. এম.এ ওয়াজেদ মিয়া ১৬ ফেব্রুয়ারি, ১৯৪২ খ্রিষ্টাব্দে রংপুর জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার ফতেহপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর বাবা আব্দুল কাদের মিয়া এবং মাতা ময়েজুন্নেসা। তিন বোন ও চার ভাইয়ের মধ্যে তিনি সর্বকনিষ্ঠ।

মানসম্মত লেখাপড়ার জন্য ওয়াজেদ মিয়াকে রংপুর জিলা স্কুলে ভর্তি করানো হয়। সেখান থেকেই তিনি ডিসটিনকশনসহ প্রথম বিভাগে মেট্রিকুলেশন পাস করেন। ১৯৫৬ সালে রংপুর জিলা স্কুল থেকে ম্যাট্রিক পাস করার পর ১৯৫৮ সালে রাজশাহী সরকারি কলেজ থেকে ইন্টারমিডিয়েট পাস করেন তিনি। এরপর ১৯৬২ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পদার্থবিজ্ঞানে এমএসসি পাশ করেন এবং ১৯৬৭ সালে লন্ডনের ডারহাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ করেন।

ছেলে সজিব ওয়াজেদ জয় ও মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের সাথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম.এ ওয়াজেদ মিয়া। —– ফাইল ছবি।

ডক্টরেট ডিগ্রি লাভের পর, দেশে ফিরে একই বছর ১৭ নভেম্বর শেখ হাসিনা ও তিনি বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। সজীব ওয়াজেদ জয় (পুত্র) ও সায়মা ওয়াজেদ পুতুল (কন্যা) নামে এই দম্পতির দুইটি সন্তান রয়েছে।

ড. এমএ ওয়াজেদ মিয়া দীর্ঘদিন কিডনি সমস্যাসহ হৃদরোগ ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। ২০০৯ সালের ৯ মে বিকাল চারটা ২৫ মিনিটে তিনি ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে ৬৭ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন।

ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর। 

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com