সংবাদ শিরোনাম
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ থেকে পড়ে আইনজীবী নিহত নবীনগরে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ এক মাদক কারবারি আটক  করোনার সম্মুখ যোদ্ধা ডিসি হায়াত উদ-দৌলা খাঁন ও তার পরিবারের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুকুরে পানিতে ডুবে দুই শিশুর করুণ মৃত্যু  বিজয়নগরে নিখোঁজের ৪দিন পর শিশুর মরদেহ উদ্ধার  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আজ করোনায় আক্রান্ত- ১৩৭ ও মৃত্যু -২  আজ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনায় আক্রান্ত- ৮৩ ও মৃত্যু -২  যতোদিন মাদ্রাসায় জাতীয় সংগীত গাওয়া না হবে ততোদিন সেগুলো খুলতে দেবেন না – মোকতাদির চৌধুরী এমপি  নাসিরনগরে অসুস্থ মানুষের মধ্যে আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ সরাইলে প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি।। একজন গ্রেপ্তার
যারা দেশকে পিছিয়ে নিতে চায় তাদেরকে সামাজিক-রাজনৈতিকভাবে বয়কট করতে হবে ; মোকতাদির চৌধুরী এমপি

যারা দেশকে পিছিয়ে নিতে চায় তাদেরকে সামাজিক-রাজনৈতিকভাবে বয়কট করতে হবে ; মোকতাদির চৌধুরী এমপি

স্টাফ রিপোর্টার//সময়নিউজবিডি 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর আসনের সংসদ সদস্য ও বে-সামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বলেছেন, যারা দেশকে পিছিয়ে নিতে চায় তাদেরকে সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে বয়কট করতে হবে।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১৭ ডিসেম্বর) দুপুরে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়া আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ট্রেজারার ও মাউশির সাবেক মহাপরিচালক প্রফেসর ফাহিমা খাতুনের সভাপতিত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোকতাদির চৌধুরী এমপি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, ১৯৭১ সালে আমাদের বিজয় হয়েছিলো সংকীর্ণতা, সাম্প্রদায়িকতা ও ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধে। আমাদের বিজয় হয়েছিলো একটি অগ্রগামী শিক্ষিত জাতি গঠনের জন্যে। যে জাতি চিন্তা-চেতনায় মানবিকতায় সামনের কাতারের হবে। সেই কাজটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার করছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার আধুনিক শিক্ষাকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। তোমরা যদি প্রধানমন্ত্রীর সাথে এক হয়ে আধুনিক শিক্ষাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাও, তাহলে আজ যারা দেশকে পিছিয়ে নিয়ে যেতে চায়, তাদেরকে সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে বয়কট করতে হবে। 
সভাপতির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর ফাহিমা খাতুন বলেন, আমরা একটি অসম্প্রদায়িক দেশ চেয়েছি। গণতন্ত্র সু-শাসন চেয়েছি, সকল সাধারন মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তি চেয়েছি। যেখানে ধর্ম নিয়ে হানাহানি থাকবেনা। এদেশের মানুষ বাঙালির চিরায়িত সংস্কৃতির আদলে একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়বে। এদেশে ধর্ম নিয়ে কোনো হানাহানি হবে না। সকলে মিলে একসাথে বাস করবো। এই সংস্কৃতির উপর আঘাত এসেছিল ৭৫ থেকে। এখন যে আমরা নিজেদের মধ্যে যে বির্তক দেখতে পাই তার সূচনা সেই থেকেই। তিনি  বলেন, এক সময় ব্রাহ্মণবাড়িয়া ছিলো সংস্কৃতি রাজধানী, এখন দেখি মৌলবাদের আস্ফালন।  তাদেরকে যে কোনো মূল্যে র“খতে হবে।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বোর্ড অব ট্রাস্টি মোঃ আলমগীর মিয়া ও এহতেশামুল বারী তানজিলসহ  বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। 
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর। 

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com