সংবাদ শিরোনাম
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানশফিকুল আলমের মুক্তিযোদ্ধা সনদ ও গেজেট বাতিল পৌর এলাকার উন্নয়ন ও নাগরিক সুবিধার জন্য পৌর পরিষদ কাজ করে যাচ্ছে ; পৌর মেয়র নায়ার কবির মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, সাবেক উপমন্ত্রী আলহাজ্ব অ্যাড. হুমায়ুন কবির এর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও মিলাদ অনুষ্ঠিত বরেণ্য রাজনীতিবিদ এড. হুমায়ূন কবীর’র প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত বিজয়নগরে কৃষক প্রশিক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাংবাদিক ইউনিয়ন’র আহবায়ক কমিটি গঠিত র‍্যাবের অভিযানে হত্যা মামলার আসামী গ্রেপ্তার জননেত্রী শেখ হাসিনার শাসনামলে সকল ধর্মের মানুষ নিরাপদ; পৌর মেয়র নায়ার কবির মহামারি পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূজার সব কার্যক্রম পরিচালনার আহবান জানিয়েছেন পৌর মেয়র নায়ার কবির চম্পকনগরে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে মোকতাদির চৌধুরী এমপির পক্ষ থেকে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান
পুলিশের অভিযানে ; ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লুন্ঠিত ২৯৬ বস্তা চিনি উদ্ধার ও গ্রেফতার- ১

পুলিশের অভিযানে ; ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লুন্ঠিত ২৯৬ বস্তা চিনি উদ্ধার ও গ্রেফতার- ১

স্টাফ রিপোর্টার//সময়নিউজবিডি    

পুলিশের অভিযানে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লুন্ঠিত  ২৯৬ বস্তা চিনি উদ্ধার এবং একজন আসামী গ্রেফতার করা হয়েছে।
জানা যায়, মোঃ মান্নান মিয়া (৩০), পিতা-মোঃ সিরাজুল ইসলাম, সাং-কাউয়াদি, থানা-পলাশ, জেলা-নরসিংদী একজন ট্রান্সপোর্ট ও চিনির ডিউ এর ব্যবসায়ী। সে সুবাদে দেশের বিভিন্ন স্থানে পলাশে অবস্থিত দেশ বন্ধু চিনি ফ্যাক্টরির ডিলারে কাছ থেকে চিনি ক্রয় করে সরবরাহ করে থাকেন। 

গত ০৬ অক্টোবর রবিবার রাত ৯টায় নরসিংদী জেলার পলাশ থানার দেশ বন্ধু ফ্যাক্টরি থেকে চট্ট মেট্টো-ট-১১-৮০৩৫ নম্বরধারী একটি ট্রাকে ১৬ মেট্টিক টন (৩২০ বস্তা যাহার প্রতিটিতে ৫০ কেজি ওজন রয়েছে) চিনি ফেনী জেলার দাগন ভূইয়া থানার দাগন ভূইয়া বাজারের কাশেম ব্রার্দাসে সরবরাহ করার জন্য বর্ণিত ট্রাকের ড্রাইভার মোঃ আনোয়ার, পিতা-মৃত গোলাম মোস্তফা, সাং-আহমদপুর, থানা-শেনবাগ,জেলা-নোয়াখালীকে চালান মূলে বুঝিয়ে দেন। এই সময় তাহার (ড্রাইভার আনোয়ার) সাথে রিয়াদ, পিতা-শাহ আলম, সাং-জগৎপুর, থানা-দাগন ভূইয়া, জেলা-ফেনী হেলপার (চালকের সহকারী) হিসেবে ছিল। 
গতকাল ০৭ অক্টোবর সোমবার সকাল সাড়ে ৬টায় ট্রাকের ড্রাইভার আনোয়ার এর ভাই সোহেল পরিচয় দিয়ে বাদীর মোঃ মান্নান মিয়া এর মোবাইল নং-০১৭১১-৪৮৬০৩২ তে ফোন দিয়ে সোহেলের মোবাইল ০১৮২৫-০৪০৯৯৮ হতে উক্ত ড্রাইভার আনোয়ার জানায় যে, সরবরাহকৃত চিনি বোঝাই উক্ত ট্রাকটি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সদর থানাধীন সুলতানপুর ইউপির কুমিল্লা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের পঞ্চবটি মোড় নামক স্থান থেকে ডাকাতি করে ট্রাকসহ চিনির বস্তাগুলো ডাকাতরা ড্রাইভার ও হেলপারকে আঘাত করে নিয়ে যায়। 
আরও জানায় যে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানাধীন কাউতলী ব্রীজ হইতে একটি সিএনজি থেকে কয়েকজন লোক চিৎকার করে বলতে থাকে যে ট্রাকের উপর লোক উঠে বস্তা কাটার চেষ্টা করছে। এই কথা শুনে ড্রাইভার ও হেলপার ভয়ে সেখানে গাড়ী না থামিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলখানার সামনে উক্ত ট্রাকটি থামিয়ে চেক করে কাউকে না দেখে পূণরায় ট্রাকটি চালাতে থাকে। ট্রাক চালক আনোয়ার পূণরায় ট্রাকটি চালু করে যাত্রা শুরু করার ফাঁকে ট্রাকটির উপর ২/৩ জন ডাকাত উঠে পরে এবং পাশাপাশি একটি সিএনজিতে কয়েকজন ডাকাত উক্ত ট্রাকটিকে অনুসরনের একপর্যায়ে ট্রাকের চিনির বস্তার উপরে থাকা ২-৩ জন ডাকাত কর্তৃক আকস্মিকভাবে ড্রাইভার আনোয়ার আঘাত প্রাপ্ত হয়ে ট্রাকটি পঞ্চবটি মোড়ে আসলে উক্ত ট্রাকের উপরে ও সিএনজিতে থাকা ৫-৬জন লোক ড্রাইভার আনোয়ার ও হেলপার রিয়াদকে এলোপাথারি মারধর করে এবং ৩ জন ডাকাত ট্রাকটি চালিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের দিকে চলে আসে। বাকী ০৩ জন ডাকাত আনোয়ার ও রিয়াদকে সিএনজিতে উঠিয়ে মহিউদ্দিননগর ব্রীজ নামকস্থান হতে অনুমান ২০০ গজ উত্তর দিকে মহাসড়কের পশ্চিম পাশে নাইনল রশি দিয়ে ড্রাইভার আনোয়ার হোসেনকে বেঁধে এবং হেলপার রিয়াদকে তার গায়ে পড়নের শার্ট খুলে মুখ বেঁধে পাট খেতে ফেলে দেয়। একপর্যায়ে বাধঁনের রশি খুলে ড্রাইভার আনোয়ার ও হেলপার রিয়াদ উক্ত স্থানের মহাসড়কে চলাচলরত একটি পিকআপের সাহায্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা থানাধীন কুটি চৌমহনীর বসুন্ধরা নামক হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহন করে। 
ঘটনাটি ব্রাহ্মণবাড়িয়া থানা পুলিশ জানতে পেরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান ঘটনার সাথে জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধার করার জন্য সদর মডেল থানা ও উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাকে নির্দেশ প্রদান করেন। 
পুলিশ সুপারের নির্দেশনা মোতাবেক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, (প্রশাসন ও অপরাধ) (পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত) মুহাম্মদ আলমগীর হোসেন, পিপিএম-সেবা এর নেতৃত্বে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল মোঃ রেজাউল কবির, অফিসার ইনচার্জ সদর মডেল থানা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন, এসআই (নিঃ)/ মোঃ শফিকুল ইসলাম, এসআই (নিঃ)/ আলী আক্কাস, এএসআই (নিঃ)/ মোহাম্মদ নেয়ামত উল্লাহ, সর্ব ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা, এসআই (নিঃ)/ মোঃ কুতুব উদ্দিন, এসআই (নিঃ)/ মোঃ শাহ কামাল, জেলা গোয়েন্দা শাখা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর সমন্বয়ে মোট-০৩টি টিম গঠন করা হয়। 
পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সুপারের সার্বিক দিক নির্দেশনা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার প্রশাসনের নেতৃত্বে গঠিত টিম ব্যাপক গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহপূর্বক হবিগঞ্জ জেলাধীন শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রীজ সংলগ্ন এলাকায় হইতে বর্ণিত ট্রাক উদ্ধার করা হয় এবং অত্র জেলাধীন নবীনগর থানাধীন কৃষ্ণনগর সড়ক বাজার এলাকায় সুমাইয়া বেকারীর মালিক মোঃ জহির (৩৭) এর গোডাউন হতে লুন্ঠিত ৩২০ বস্তা (১৬ মেঃ টঃ) চিনির মধ্যে ২৯৬ বস্তা চিনি উদ্ধার করা হয়।
আটককৃত জহিরকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সাথে জড়িত অন্যান্য অভিযুক্তদের নাম পরিচয় পাওয়া গেছে এবং জড়িত আসামীদেরকে চিহ্নিত করা হয়েছে। অন্যান্য ডাকাতদের গ্রেফতার ও বাকী ২৪বস্তা চিনি উদ্ধারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। 
এই সংক্রান্তে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার মামলা নং-১৮, তাং-০৭/১০/১৯ইং, ধারা-৩৯৫/৩৯৭ পেনাল কোড রুজু করা হয়েছে।
District police Brahmanbaria (ডিস্ট্রিক্ট পুলিশ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার) নামে ফেইসবুক পেইজে দেওয়া স্ট্যাটাসের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়। 

ইনাম/সময়নিউজবিডি টোয়েন্টিফোর।              

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com