সংবাদ শিরোনাম
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানশফিকুল আলমের মুক্তিযোদ্ধা সনদ ও গেজেট বাতিল পৌর এলাকার উন্নয়ন ও নাগরিক সুবিধার জন্য পৌর পরিষদ কাজ করে যাচ্ছে ; পৌর মেয়র নায়ার কবির মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, সাবেক উপমন্ত্রী আলহাজ্ব অ্যাড. হুমায়ুন কবির এর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও মিলাদ অনুষ্ঠিত বরেণ্য রাজনীতিবিদ এড. হুমায়ূন কবীর’র প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত বিজয়নগরে কৃষক প্রশিক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাংবাদিক ইউনিয়ন’র আহবায়ক কমিটি গঠিত র‍্যাবের অভিযানে হত্যা মামলার আসামী গ্রেপ্তার জননেত্রী শেখ হাসিনার শাসনামলে সকল ধর্মের মানুষ নিরাপদ; পৌর মেয়র নায়ার কবির মহামারি পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূজার সব কার্যক্রম পরিচালনার আহবান জানিয়েছেন পৌর মেয়র নায়ার কবির চম্পকনগরে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে মোকতাদির চৌধুরী এমপির পক্ষ থেকে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান
আবারও আলোচনায় ডা. এজাজ

আবারও আলোচনায় ডা. এজাজ


সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর ডেস্ক রিপোর্ট 

বরাবরই আলোচনায় থাকেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত অভিনেতা ডা. এজাজ। সোশ্যাল মিডিয়াতে তাকে নিয়ে প্রশংসা করেছেন অনেকেই। সোমবার এভারগ্রীণ বাংলাদেশ নামে একটি ফেসবুক পেইজে আব্দুল্লাহিল কাফী নামে এক ব্যক্তি লিখেছেন, ‘আমাদের দেশে এখনো ভালো এবং মানবিকতা সম্পন্ন ডাক্তার আছে। তিনি হলেন বিশিষ্ট অভিনেতা ডাক্তার এজাজুজ ইসলাম এই ধরণের ডাক্তার এর কাছে গেলেই রোগ ৫০% ভালো হয়ে যায়। রেস্পেক্ট স্যার’।

পোস্টেটিতে দেখা যাচ্ছে, গরীব মানুষদের চিকিৎসা করার জন্য মাত্র ৩০০টাকা নিয়ে থাকেন ডা. এজাজ। রুগী পুরনো হলে সেই ফি হয় ২০০টাকা। অনেকেই শেয়ার করেছেন এই পোস্টটি।এ ব্যাপারে ডা. এজাজ বলেন, ‘গাজীপুরে আমার ব্যক্তিগত চেম্বারে প্রতিদিন সন্ধ্যায় রোগী দেখি। অনেকেই আসেন চিকিৎসা নিতে। আমি আমার সাধ্যমতো চেষ্টা করি তাদের সুস্থ করে তোলার। কোন রুগী হয় তো নতুন করে আবারও সামনে এনেছে বিষয়টি । মাঝে মধ্যে রুগীরা আবেগে আপ্লুতো হয়ে এগুলো পোস্ট দিয়ে বসে। এর মধ্যে গত রাত্রে টাঙ্গাইল থেকে একজন এসেছিল। ছবি তুলে নিয়ে গেছে মনে হয়।’

প্রসঙ্গত, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিউক্লিয়ার মেডিসিন বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ডা. এজাজুল ইসলাম। সরকারী দায়িত্ব পালন করে গাজীপুরে নিজের চেম্বারে সেখানকার মানুষদের চিকিৎসা দিয়ে থাকেন এজাজ। অসহায় গরীব মানুষদের চিকিৎসা করতে খুবই অল্প পরিমাণ টাকা ভিজিট নিয়ে থাকেন তিনি। তাই সবাই তাকে ‘গরীবের ডাক্তার’ নামে ডাকেন।

অন্যদিকে অভিনয়ে তিনি এতোটাই জনপ্রিয়, যে কোন নাটক সিনেমায় তার উপস্থিতি মানেই বাড়তি বিনোদন। চিকিসক পেশা ঠিক রেখেই নিয়মিত অভিনয় করে চলেছেন এই অভিনেতা। নিজের অভিনয় দিয়ে মানুষের মন জয় করেছেন অনেকে আগেই। আর চিকিৎসক হিসেবেও অসংখ্য মানুষের হৃদয়ে রয়ে গেছেন প্রিয় মানুষ হিসেবে।
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।  

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com