সংবাদ শিরোনাম
বিজয়নগরে ইউএনও আরাফাত ও গণপূর্তের প্রকৌশলীদের মধ্যে হাতাহাতি দ্বিতীয় মেয়াদে মেয়র নির্বাচিত হওয়ায় নায়ার কবিরকে জেলা কেন্দ্রীয় সমবায় কল্যান সমিতির ফুলেল শুভেচছা বিজয়নগরে আগামী ৭ মার্চ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রথমবারের মত মুদ্রণশিল্প মালিকদের পরিবেশ অধিদপ্তরের নিবন্ধন ওপারে চলে গেলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম দ্বিতীয়বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হওয়ায় নায়ার কবিরকে বিভিন্ন মহলের ফুলেল শুভেচছা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রুবেলের গাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা ও ভাংচুর।। আহত-০২।। গ্রেপ্তার -০২ বীর মুক্তিযোদ্ধা হুমায়ুন কবির খান স্মৃতি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় মেয়াদ মেয়র নির্বাচিত হওয়ায় নায়ার কবিরকে বিজয়নগর যুবলীগসহ বিভিন্ন সংগঠন ও বিশিষ্টজনদের ফুলেল শুভেচ্ছা অব্যাহত এবার কাউন্সিলর হিসেবে ইন ও আউট হলেন যারা
নাসিরনগরে পানি নিষ্কাশনের নালা বন্ধ করে জলাবদ্ধতা সৃৃষ্টি।। বাড়ি-ঘর ছাড়লেন কয়েকটি পরিবার

নাসিরনগরে পানি নিষ্কাশনের নালা বন্ধ করে জলাবদ্ধতা সৃৃষ্টি।। বাড়ি-ঘর ছাড়লেন কয়েকটি পরিবার

smart

মােঃ আব্দুল হান্নান, নাসিরনগর প্রতিনিধি 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার গােকর্ণ ইউনিয়নের পাঠানিশা গ্রামের প্রায় ২ শত বছরের প্রাচীন পুকুরের পানি নিষ্কাশনের নালা বন্ধ করায় ভারী বর্ষণের কারণে উঠানে গিয়ে পানি জমে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়ায় কয়েকটি পরিবার বাড়িঘর ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছেন। তাছাড়াও জলাবদ্ধতার কারণে ব্যাপক ফসলহানীর ঘটনা ঘটেছে। সরজমিন এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে এমনই চিত্র। এই বিষয়ে গ্রামের প্রায় অর্ধশতাধিক লােক মিলে জলাবদ্ধতা থেকে পরিত্রাণ পেতে ১৮ জুন ২০২০ নাসিরনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর এক লিখিত অভিযােগ দাখিল করেন।

ছবি ক্যাপশনঃ ৫ একর জায়গায় ২শত বছরের পুরাতন পুকুরটি।

অভিযােগ সূত্রে জানা গেছে, পাঠানিশা মৌজার প্রায় ৫ একর জায়গার উপর নির্মিত ২ শত বছরের পুরাতন পুকুরের পানি নিষ্কাশনের সরকারি নালার উপর কালভার্ট থাকলেও  গ্রামের দুস মাহমুদ খানের ছেলে জাহাম খান, মিজান খান, মােনায়েম খান, লিটন মাস্টার, মােবারক ডাক্তার, কুমুদ বন্ধু রায় ও মােশারফ মিয়া মিলে রাতের আধারে ড্রেজার দিয়ে মাটি ফেলে নালাটি বন্ধ করে দেয়। এতে অতিরিক্ত পানি জমে ইদন মিয়ার ছেলে মফিজ মিয়া, ফারুক মিয়ার ছেলে রফিক মিয়া সহ তিনটি পরিবারের ঘর দরজা পানির নীচে তলিয়ে যায়। বর্তমানে তারা জলাবদ্ধতার কারণে নিজ বাড়ি-ঘর ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছেন। তাছাড়াও পুকুরের চার পাড়ের অনেক ফসলি জমি তলিয়ে গেছে। তলিয়ে গেছে বিভিন্ন ফসলের বীজ বাগান এবং ফুল-ফলাদির গাছ। এর ফলে পানিতে দূর্গন্ধের কারণে আশপাশের লােকজন বসবাস করতে পারছে না।

ছবি ক্যাপশনঃ জলাবদ্ধতায় বাড়ি-ঘর ছেড়ে যাওয়া পরিবারের সদস্যদের একাংশ।

এ বিষয়ে জাহাম খানের সাথে যােগাযােগ করে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমাদের মালিকানা জায়গা আমরা ভরাট করেছি।  ভােক্তভােগী দানা মাস্টার, বসু মিয়া, নরেশ দত্ত, যােতিশ দেব,  হরি চন্দ্র দেব সহ সকল অভিযােগকারীরা জানান,  প্রায় ২ শত বছরের পুরাতন নালাটি তারা জােরপূর্বক মাটি ফেলে ভরাট করার কারণে এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।বিষয়টি দ্রুত সমাধানের জন্য ভুক্তভােগীরা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষপ কামনা করছে। 
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।    

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com