সংবাদ শিরোনাম
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানশফিকুল আলমের মুক্তিযোদ্ধা সনদ ও গেজেট বাতিল পৌর এলাকার উন্নয়ন ও নাগরিক সুবিধার জন্য পৌর পরিষদ কাজ করে যাচ্ছে ; পৌর মেয়র নায়ার কবির মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, সাবেক উপমন্ত্রী আলহাজ্ব অ্যাড. হুমায়ুন কবির এর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও মিলাদ অনুষ্ঠিত বরেণ্য রাজনীতিবিদ এড. হুমায়ূন কবীর’র প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত বিজয়নগরে কৃষক প্রশিক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাংবাদিক ইউনিয়ন’র আহবায়ক কমিটি গঠিত র‍্যাবের অভিযানে হত্যা মামলার আসামী গ্রেপ্তার জননেত্রী শেখ হাসিনার শাসনামলে সকল ধর্মের মানুষ নিরাপদ; পৌর মেয়র নায়ার কবির মহামারি পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূজার সব কার্যক্রম পরিচালনার আহবান জানিয়েছেন পৌর মেয়র নায়ার কবির চম্পকনগরে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে মোকতাদির চৌধুরী এমপির পক্ষ থেকে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান
স্বাস্থ্য সেবায় দূর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

স্বাস্থ্য সেবায় দূর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

মোঃ আব্দুল হান্নান, নাসিরনগর প্রতিনিধি 
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে অবস্থিত ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি এখন জেলা পেরিয়ে স্বাস্থ্য সেবায় জাতীয় পর্যায়ের আলোচনায় পরিণত হয়েছে। ১৯৭২ সালে প্রতিষ্টিত স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটিতে এতদিন বিরাজ করছিল জরার্জীণ অবস্থা। ২০১৯ সালের ২৩ মার্চ অত্র হাসপাতালে উপজলো স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হিসেবে ডাঃ অভিজৎ রায় যোগদানের পর ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০১ নাসিরনগর আসন থেকে বি,এম ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম সংসদ সদস্য নির্বাচিত হবার পর থেকে  অত্র ৫০ শয্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি স্বাস্থ্য সেবার এক নতুন ধার খুলতে থাকে। নাসিরনগরবাসীর স্বাস্থ্য সেবার কথা চিন্তা করে দুজন মিলে এ হাসপাতালের উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন চিন্তা ভাবনা ও পরিকল্পনা শুরু করেন।ডাঃ অভিজিৎ রায় হাসপাতালের বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরে সংসদ সদস্যকে বুঝাতে সক্ষম হয়। অভিজিৎ রায়ের পরার্মশ মাথায় নিয়ে মাননীয় সংসদ সদস্য বি,এম ফরহাদ হোসনে সংগ্রাম অত্র হাসপাতালের উন্নয়নে মনোনিবেশ করেন। যিনি নাসিরনগরের এমপি হওয়ার পর থেকেই নাসিনরগরবাসীর স্বাস্থ্য সেবার কথা চিন্তা করে হাসপাতালটিকে নিয়ে স্বপ্ন দেখতেন। নাসিরনগরের জনগণের স্বাস্থ্য সেবার জন্য যাতে বাহিরে যেতে না হয়। হাসপাতালের আই,সি,ও বেড উদ্বোধন করতে গিয়ে সিভিল সার্জন ডাঃ একরামুল্লাহ বলেন, আমি ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাক্ষণবাড়িয়া সদর  হাসপাতাল পরির্দশন করতে গিয়ে ৮০ জন আর ৫০ শয্যা বিশিষ্ট নাসিরনগর হাসপাতাল পরিদর্শনে এসে ৬০ জন রোগী দেখতে পাই। কথা হয় নাসিরনগরে কর্মরত উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা র্কমর্কতা ডাঃ অভিজিৎ রায়ের সাথে। তিনি বলেন, বিএম ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম এমপির ঐকান্তিক প্রচেষ্ঠায় এগিয়ে যাচ্ছে নাসিরনগরের স্বাস্থ্য খাত। ডাঃ অভিজিৎ রায় আরো বলেন, দেশের ৪২১টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মধ্যে ৬৯.১৬ পয়েন্ট পেয়ে নাসিরনগর উপজলো স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স র‍্যাংকে ৭৫ তম। র‍্যাংক দেখে মনে হচ্ছে যার আশে পাশে র‍্যাংকে জেলার আর অন্য কোনো হাসপাতাল নেই। বর্তমানে হাসপাতাটিকে ১০০ শয্যায় ও ১০ শয্যা বিশিষ্ট গুনিয়াউক হাসপাতালটিকে ২০ শয্যায় পরিনত করার কাজ চলছে। সমস্ত কাগজপত্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। তিনি বলেন,আগামী ৬ সেপ্টেম্বর রোজ রবিবার অত্র হাসপাতাল পরিদর্শনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে পরিদর্শন টিমও আসার কথা রয়েছেন।  
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর। 

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com