সংবাদ শিরোনাম
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ থেকে পড়ে আইনজীবী নিহত নবীনগরে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ এক মাদক কারবারি আটক  করোনার সম্মুখ যোদ্ধা ডিসি হায়াত উদ-দৌলা খাঁন ও তার পরিবারের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুকুরে পানিতে ডুবে দুই শিশুর করুণ মৃত্যু  বিজয়নগরে নিখোঁজের ৪দিন পর শিশুর মরদেহ উদ্ধার  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আজ করোনায় আক্রান্ত- ১৩৭ ও মৃত্যু -২  আজ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনায় আক্রান্ত- ৮৩ ও মৃত্যু -২  যতোদিন মাদ্রাসায় জাতীয় সংগীত গাওয়া না হবে ততোদিন সেগুলো খুলতে দেবেন না – মোকতাদির চৌধুরী এমপি  নাসিরনগরে অসুস্থ মানুষের মধ্যে আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ সরাইলে প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি।। একজন গ্রেপ্তার
সরাইলে সাবেক চেয়ারম্যানের দাপটে অসহায় ৯০ বছরের বৃদ্ধ রজব আলী

সরাইলে সাবেক চেয়ারম্যানের দাপটে অসহায় ৯০ বছরের বৃদ্ধ রজব আলী

স্টাফ রিপোর্টার//সময়নিউজবিডি 
৯০ বছরের বৃদ্ধ কৃষক রজব আলী। কৃষি কাজ করেই তার পরিবার পরিজন নিয়ে অনেক কষ্টে দিনাতিপাত। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার পাকশিমুল ইউনিয়নে প্রতিবছর এই বৃদ্ধ কৃষক অন্তত ৬০ বিঘা জমি চাষ করেন। এর থেকে প্রতিবছর প্রায় হাজার হাজার মন ধান উৎপাদন হতো। এই জমির উৎপাদিত ফসল দিয়ে চলে তার ২১জনের পরিবার। কিন্তু এবছর স্থানীয় প্রভাবশালীদের বাঁধার মুখে সেই জমিগুলো চাষ করতে পারেনি। অথচ তার জমির চারপাশের জমিগুলোতে ফসলের সবুজ সমাহার। বৃদ্ধ রজব আলীর পরিবারের অভিযোগ, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম এই সেচ প্রকল্পের পানি তো দেননি, উল্টো ১০ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করেছেন। 

বৃদ্ধ কৃষক রজব আলী আরো বলেন, পাকশিমুল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কাশেম ওরফে কাছম আলী চেয়ারম্যানের বাঁধায় আমার ৬০ বিঘা জমি চাষাবাদ করতে পারিনি। তারা গত ৫ জানুয়ারি সকালে গ্রামের পূর্ব দিকে ফসলি মাঠে ভূঁইয়ার চরের আমার সেচ স্কিম জোরপূর্বক দখল করে নেন। আমাকে ও আমার সন্তানদের জমি চাষাবাদ করতে মাঠে নামতে দিচ্ছেন না তারা। আমার বীজ তলা দখল করে নিয়ে তারা একটি জমি চাষ করে ফেলেছেন। কৃষক রজব আলী আরও বলেন, জমি চাষ করতে না পারায় এ বছর আমি অন্তত এক হাজার মণ ধান থেকে বঞ্চিত হয়েছি।  আমি প্রশাসনের কাছে সুষ্ঠু বিচার প্রার্থনা করছি। 
এ ঘটনায় বৃদ্ধ কৃষক রজব আলীর ছেলে সলতু মিয়া বাদী হয়ে গত ২৬ জানুয়ারি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কাশেম ওরফে কাছম আলী সহ ৯ জনের নাম উল্লেখ করে আরও অজ্ঞাত ৪/৫জনকে আসামী করা হয়েছে। মামলার এজহারে অভিযোগ করে বলা হয়, গত ৫ জানুয়ারি সেচের পানি দিতে বাঁধা দেয়। এসময় ১০লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করেন ও কয়েকজনকে মারধোর করেন। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে আদালত পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেশটিগেশন (পিবিআই) কে মামলাটি তদন্তের নির্দেশ দেন।
এই বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পিবিআইয়ের পুলিশ সুপার শাখাওয়াত হোসেন জানান, আমাদের কাছে মামলার নথি এসে পৌঁছার পর নিয়ম অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। 
এদিকে সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কাশেমের বিরুদ্ধে বৃদ্ধ কৃষক রজব আলীর ছেলে মামলা করায় তার লোকজন রজব আলীর পরিবারকে মামলা তুলতে হুমকি দেন। মামলা দায়েরের পর দিন বৃদ্ধের ছেলে সলতু মিয়া স্থানীয় বাজারে বাজার করতে গেলে সাবেক চেয়ারম্যানের লোকজন হামলা করার চেষ্টা করে। এই ঘটনার পরেরদিন আদালতের সহযোগিতা চেয়ে আরও একটি মামলা দায়ের করে রজব আলীর ছেলে। 
রজব আলীর আরও এক ছেলে আঙ্গুর মিয়া জানান, এ ঘটনায় কাছম আলী চেয়ারম্যানের পক্ষ নিয়ে একতরফা সালিশ-বৈঠক করেন অরুয়াইল এলাকার সালিশকারক আবু তালেব মিয়া, কুতুবউদ্দিন ভূঁইয়াসহ কয়েকজন। তারা অন্যায়ভাবে একটা রায় দেন; কিন্তু আমরা এ রায় মেনে নেয়নি।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম গণমাধ্যম কর্মীদের বলেন, কৃষক রজব আলীর অভিযোগ সঠিক নয়। তাদের জমি চাষাবাদে আমি কোনো বাঁধা দেয়নি। সেচ স্কিমের মিটার আমার নামে। ২২ বছর যাবত রজব আলী এ সেচ স্কিম চালিয়েছেন। এরআগে তিন বছর এ সেচ স্কিম আমি চালিয়েছি। কৃষকদের অনুরোধে সেচ স্কিম আমি ফিরিয়ে নিয়েছি। এখানে কোন প্রকার চাঁদা চাওয়া হয়নি।
এ ব্যাপারে সরাইল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আল মামুন মুহাম্মদ নাজমুল আহমেদ বলেন, বিষয়গুলো আমাদের জানা নেই। কেউ আমাদের কাছে এ বিষয়ে অভিযোগ করেননি। আমরা বিষয়গুলোর খোঁজ-খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবো।
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর। 

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com