সংবাদ শিরোনাম
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতি তান্ডব পুলিশের এপিসিতে অগ্নিসংযোগের মূলহোতা জাকারিয়া গ্রেপ্তার কমলগঞ্জে ব্যবসায়ীর ধান নিয়ে ট্রাকসহ চালক উধাও কমলগঞ্জে ইফতার সামগ্রী বিতরণ  নাসিরনগরে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক খাদ্য সহায়তা বিতরণ করলেন ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম এমপি  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তিনটি পৃথক অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ পাঁচ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার বিজয়নগরে অর্থ সহায়তা আনতে গিয়ে আঙ্গুল হারানো রিনার দায়িত্ব নিলেন উপজেলা প্রশাসন   সরাইলে হত্যাসহ অর্ধডজন মামলার আসামী গ্রেপ্তার ফেনী থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তান্ডবের ঘটনায়  নেতা গাজী ইয়াকুব গ্রেপ্তার আশুগঞ্জে র‍্যাবের অভিযানে মোবাইল ফোনের টাওয়ারের যন্ত্রপাতিসহ গ্রেপ্তার- ১।। প্রাইভেটকার জব্দ   ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় র‍্যাবের অভিযানে মোটরসাইকেল চোর সিন্ডিকেটের এক সদস্য গ্রেপ্তার।। ৩ টি মোটরসাইকেল উদ্ধার 
হেফাজতি তান্ডব- ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশ লাইন হামলার পরিকল্পনাকারীসহ গ্রেপ্তার-১১

হেফাজতি তান্ডব- ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশ লাইন হামলার পরিকল্পনাকারীসহ গ্রেপ্তার-১১

স্টাফ রিপোর্টার//সময়নিউজবিডি 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতের তান্ডবের সময় জেলা পুলিশ লাইন্সে হামলার ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারি জেলা যুবদল নেতা মোঃ হাসমত খন্দকার-(৪৯)সহ আরো ১১জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 
গতকাল মঙ্গলবার বিকেল থেকে মঙ্গলবার রাতব্যাপী জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। এনিয়ে তান্ডবের ঘটনায় ৩২৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে অন্যতম হলেন জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ হাসমত খন্দকার। তিনি সদর উপজেলার সুহিলপুর ইউনিয়নের ঘাটুরা গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে। মঙ্গলবার বিকেলে পৌর এলাকার পশ্চিম মেড্ডা শরীফপুর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। 
পুলিশ জানায়, হেফাজতের তান্ডব চলাকালে গত ২৮ মার্চ পুলিশ লাইনসে হামলা ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারি হিসেবে হাসমত খন্দকারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
বুধবার জেলা পুলিশের বিশেষ শাখা থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গ্রেপ্তারকৃত হাসমত খন্দকার পুলিশ লাইনসে হামলার মূল পরিকল্পনাকারি। এ ঘটনায় গত ১৪ এপ্রিল দায়ের হওয়া মামলার তিনি প্রধান আসামী।
প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘন্টায় হাসমত খন্দকার সহ ১১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে হেফাজতের তান্ডবের ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিভিন্ন থানায় এ পর্যন্ত ৫৬টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় ৪৯টি, আশুগঞ্জ থানায় ৪টি, সরাইল থানায় ২টি এবং আখাউড়া রেলওয়ে থানায় ১টি মামলা দায়ের করা হয়। ৫৬টি মামলায় ৪১৪ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ৩০/৩৫ হাজার লোককে আসামী করা হয়। পুলিশ মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত এ সকল মামলায় মোট ৩২৮ জনকে গ্রেপ্তার করে।
এ ব্যাপারে জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ডিআইওয়ান) ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, পুলিশ ভিডিও ফুটেজ ও ছবি দেখে আসামীদেরকে গ্রেপ্তার করছে। এছাড়াও যাদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ আছে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। তিনি বলেন তান্ডবের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৩২৮জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তির অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আগমনের প্রতিবাদে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা গত ২৬ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত টানা তিনদিন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ব্যাপক ধ্বংসাত্মক কার্যকলাপ চালায়। হামলাকারীরা সরকারি ও বেসরকারি প্রায় অর্ধশতাধিক স্থাপনা ব্যাপক ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে পুরো ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে মৃত্যুপুরিতে পরিনত করে। 
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর। 

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com