সংবাদ শিরোনাম
কমলগঞ্জে সোনালী ব্যাংক এর এজেন্ট ব্যাংকিং উদ্বোধন কমলগঞ্জের মুফতি ইমাম উদ্দিন সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ঠ ইমাম ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শেখ কামাল আন্তঃ স্কুল ও মাদ্রাসা এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ফের সকল আদালত বর্জনের ঘোষণা ব্রাহ্মণবাড়িয়া আইনজীবী সমিতির কমলগঞ্জের আদমপুরে মিনি নাইট ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন ইসলামপুর কাজী রফিকুল ইসলাম স্কুল এন্ড কলেজে নবীণবরন অনুষ্ঠিত শোক সংবাদ: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কৃতি সন্তান সংগীত পরিচালক আনোয়ার জাহান নান্টুর ইন্তেকাল ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রাক্তন স্কাউটস এর পূর্নমিলনীর লক্ষ্যে আহবায়ক কমিটি গঠন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিজিবির অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদক উদ্ধার তরুণ প্রজন্মকে দেশপ্রেমিক ও আর্দশ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে পারে কেবলমাত্র বই; ডিসি শাহগীর আলম

সরাইলে বেড়েই চলছে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা।। শয্যা সংকটের কারণে চিকিৎসা সেবা ব্যাহত

সরাইলে বেড়েই চলছে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা।। শয্যা সংকটের কারণে চিকিৎসা সেবা ব্যাহত

Advertisements
শফিকুর রহমান//সরাইল উপজেলা প্রতিনিধি
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে দিনে দিনে বেড়েই চলছে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা। এতে করে রোগীর সংকুলান হচ্ছে না হাসপাতাল গুলোতে। যার ফলে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের শয্যা সংকটের কারণে মেঝেতে চিকিৎসা নিচ্ছেন রোগীরা।
করোনা প্রাদুর্ভাব কমতেই সরাইলে যতদিন যাচ্ছে ডায়রিয়া প্রকোপ বেড়েই চলেছে। এসব রোগীর মধ্যে বেশির ভাগই হচ্ছে শিশু ও বয়স্করা। ডায়রিয়া রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে স্বাস্থ্য বিভাগে কর্মরত সেবা কর্মীদের। ঔষুধের সংকট না থাকলেও  শয্যা সংকটের কারণে চিকিৎসা সেবা ব্যাহত হচ্ছে। বৃহস্পতিবার উপজেলার স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ঘুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।
বৃহস্পতিবার সরেজমিনে হাসপাতালের নারী ও পুরুষ ওয়ার্ডে গিয়ে দেখা যায়, শয্যা ছাড়াও হাসপাতালের মেঝেতে চিকিৎসা নিচ্ছেন রোগীরা।
সরাইল উপজেলার স্বাস্থ্যকেন্দ্রের সূত্রে জানা যায়, তীব্র গরমে চলতি মাসে ডায়রিয়া সংক্রমণ, রোগীর সংখ্যা ও চাপ অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে গেছে। উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের মধ্যে সরাইল সদর, পানিশ্বর, অরুয়াইল,পাকশিমুল, শাহজাদাপুর ইউনিয়নে ডায়রিয়া পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। চলতি মাসের শুরুতেই সরাইল ৫০ শয্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও ৯টি ইউনিয়নে উপ স্বাস্থ্য কেন্দ্রে, কমিউনিটি ক্লিনিক্সে চিকিৎসাসেবা নিচ্ছে।
আবাসিক চিকিৎসক ডাক্তার লিটন কর্মকার জানান, ৪০ জন ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার নোমান মিয়া বলেন, করোনা প্রাদুর্ভাব কমতেই ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় হাসপাতালে রোগীর চাপ একটু বেশি। হাসপাতালে গড়ে ৫০ থেকে ৬০ জন রোগী ভর্তি হলেও কয়েকদিন ধরে ডায়রিয়া, আমাশয়জনিত রোগ ও পেটব্যথা নিয়ে বেশি রোগী ভর্তি হচ্ছেন। তিনি আরও বলেন,  ডায়রিয়া হলে খাবার স্যালাইন খেতে হবে, প্রচুর পানি ও স্বাভাবিক খাবার খেতে হবে। টিউব ওয়েল থেকে বিশুদ্ধ পানি না উঠায় বিশুদ্ধ অভাবে ও স্বাস্থ্য সচেতনতার অভাবে এবং তীব্র গরমে মানুষ ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে। মানুষ অস্বাস্থ্যকর পানি পান এবং গৃহস্থালির কাজে ব্যবহার করায় ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে। হাসপাতালেই প্রতিদিন ৫০ থেকে ৬০ জন ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগী ভর্তি হচ্ছেন।
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com
Translate »