সংবাদ শিরোনাম
কমলগঞ্জে সোনালী ব্যাংক এর এজেন্ট ব্যাংকিং উদ্বোধন কমলগঞ্জের মুফতি ইমাম উদ্দিন সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ঠ ইমাম ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শেখ কামাল আন্তঃ স্কুল ও মাদ্রাসা এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ফের সকল আদালত বর্জনের ঘোষণা ব্রাহ্মণবাড়িয়া আইনজীবী সমিতির কমলগঞ্জের আদমপুরে মিনি নাইট ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন ইসলামপুর কাজী রফিকুল ইসলাম স্কুল এন্ড কলেজে নবীণবরন অনুষ্ঠিত শোক সংবাদ: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কৃতি সন্তান সংগীত পরিচালক আনোয়ার জাহান নান্টুর ইন্তেকাল ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রাক্তন স্কাউটস এর পূর্নমিলনীর লক্ষ্যে আহবায়ক কমিটি গঠন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিজিবির অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদক উদ্ধার তরুণ প্রজন্মকে দেশপ্রেমিক ও আর্দশ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে পারে কেবলমাত্র বই; ডিসি শাহগীর আলম

বিজয়নগরে আনসার ভিডিপির মনগড়া সমাবেশ।। ক্ষুব্ধ বিভিন্ন মহল

বিজয়নগরে আনসার ভিডিপির মনগড়া সমাবেশ।। ক্ষুব্ধ বিভিন্ন মহল

Advertisements
স্টাফ রিপোর্টার//সময়নিউজবিডি
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তার আয়োজনে “উপজেলা সমাবেশ ২০২২ খ্রিঃ” অনুষ্ঠানের দাওয়াত, প্রচারসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে উপজেলার জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ ও সাংবাদিকদের মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।
সোমবার (১৬ মে) সকাল ১০ টায় উপজেলা প্রাঙ্গণে আয়োজিত অনুষ্ঠান শুরুতে প্রধান অতিথি নিয়েও দেখা দেয় ক্ষোভ ও অসন্তোষ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপজেলা চেয়ারম্যান নাছিমা মুকাই আলীকে দাওয়াত প্রদান করা হলেও ব্যানারে তাঁর নাম রাখা হয়নি। সে উপস্থিত হয়ে ব্যানারে তাঁর নাম না দেখে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানালে উপস্থিত আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর জেলা কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল বাকি ব্যানার পরিবর্তন করে তাঁর নামের পরিবর্তে প্রধান অতিথি হিসেবে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাছিমা মুকাই আলীকে রেখে নতুন ব্যানার করার নির্দেশ দিয়ে ও চেয়ারম্যান এর কাছে ক্ষমা চেয়ে তাঁকে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করাতে সম্মতি করান। পরে বেলা ১২ টার পরে নতুন ব্যানার তৈরি করে এনে অনুষ্ঠান শুরু করা হয়।
বিজয়নগর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সাবিত্রী রাণী জানান, আমি আজকের অনুষ্ঠানের বিষয়ে কোন কিছুই জানিনা। আমাকে কেউ দাওয়াত করেননি। অনুষ্ঠানের খবর পেয়ে আমি আমার অফিসের স্টাফদের জিজ্ঞাসা করেছি কেউ আমাকে অফিসে না পেয়ে তাদের কাছে দাওয়াত দিয়েছিলেন কি না। তারা আমাকে জানান কেউ দাওয়াত নিয়ে আসেনি।
এছাড়াও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যানসহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের কোন চেয়ারম্যান, উপজেলার রাজনৈতিক দলের কোন নেতা ও গণমাধ্যম কর্মীদের অনেকেই দাওয়াত পাওয়া থেকে বঞ্চিত ছিলেন।
উপজেলার একাধিক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জানান, উপজেলা প্রাঙ্গণে প্যান্ডেল টাঙ্গিয়ে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উপজেলা কর্মকর্তা বিশাল বড় প্রোগ্রাম আয়োজন করলেও আজকের কোন প্রোগ্রামের দাওয়াত কেউ করেনি। এমন কি অনুষ্ঠানের সময় উপজেলায় উপস্থিত আছি দেখেও তারা কিছু বলেনি বিদায় জরুরী কাজ শেষে তাড়াতাড়ি উপজেলা ত্যাগ করেছি বলে দুই জন চেয়রাম্যানের এই প্রতিবেদককে জানান।
উপজেলা আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা মিনা রাণী দাস জানান, আমি যা করেছি আমার জেলা স্যারের নির্দেশ মতো করেছি। তাই একটু ভূল হয়েছিল। পরে আমরা নতুন ব্যানার বানিয়ে অনুষ্ঠান করেছি। আমাদের নিজেদের প্রোগ্রাম হওয়ায় উপজেলার অন্য কাউকে দাওয়াত করা হয়নি।
উল্লেখ্য, উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ এইচ ইরফান উদ্দিন আহামেদ এর সভাপতিত্বে আয়োজিত উপজেলা সমাবেশে উপজেলার বিভিন্ন জায়গা থেকে আনসার ও ভিডিপির প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রায় দুই শতাধিক লোক অংশগ্রহন করেন।
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com
Translate »