সংবাদ শিরোনাম
আল মামুন সরকারের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী ও ওবায়দুল কাদেরের শোক ওপারে চলে গেলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক আল মামুন সরকার কমলগঞ্জে জাতীয় কন্যা শিশু দিবস পালিত উবায়দুল মোকতাদিরের ‘রক্তের শপথে হই বলিয়ান’ গ্রন্থের প্রকাশনা উৎসব বিশ্ব পর্যটন দিবসে কমলগঞ্জে র‍্যালি ও পথসভা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এস এ পরিবহন কুরিয়ার সার্ভিসের কাভার্ডভ্যান থেকে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় শাড়ি জব্দ কমলগঞ্জ পৌরসভায় জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস পালিত কমলগঞ্জে ট্রেনের ধাক্কায় মা নিহত ও শিশু সন্তান আহত জান্নাতের প্রলোভন দেখিয়ে ছাত্রীকে ধর্ষণ।। ধর্ষক গ্রেপ্তার ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার অবসরপ্রাপ্ত সার্ভেয়ার মতিউর রহমানের ইন্তেকাল

বিজয়নগরে রাস্তা ও পানি নিষ্কাশন বন্ধ করে মাছ চাষ।। প্রতিকার চেয়ে ভুক্তভোগীর অভিযোগ 

বিজয়নগরে রাস্তা ও পানি নিষ্কাশন বন্ধ করে মাছ চাষ।। প্রতিকার চেয়ে ভুক্তভোগীর অভিযোগ 

স্টাফ রিপোর্টার//সময়নিউজবিডি
দীর্ঘদিনের রাস্তা বন্ধ ও পানি নিষ্কাশনের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির অভিযোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।
রবিবার (১২ জুন) উপজেলার ইছাপুরা ইউনিয়নের কৈতারা বাড়ির পক্ষে মােঃ শাহ-জাহান মিয়া মেম্বার এ অভিযোগ করেন। অভিযোগে অর্ধশতাধিক স্থানীয় নাগরিকরা স্বাক্ষর করেন।
লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বিজয়নগর উপজেলার ইছাপুরা ইউনিয়নের কৈতারা বাড়ির লোকজনসহ আশেপাশের অনেক লোক দীর্ঘদিন যাবত কৈতারা মৌজাস্থিত বি এস ৭১৮ দাগে ৩৫ শতক ভূমি উপর দিয়ে একটি খাল রয়েছে। এ খাল দিয়ে এলাকার কয়েকশত একর জায়গার উজানের পানি নিষ্কাশনসহ উক্ত জায়গা দিয়ে রাস্তা ব্যবহার করে মাঠে চলাফেরা করে কৃষিকাজ গরু ছাগল ভেড়া নিয়ে জমিনে যাতায়াত করত। কিন্তু ইদানিং জোরপূর্বক মাটি ভরাটের মাধ্যমে জবর দখল করে ইছাপুরা গ্রামের আরব আলীর ছেলে আব্দুল্লাহ, আদম খাঁ ও খোকন মিয়া মাছ চাষ শুরু করেছে। এতে করে বৃষ্টি পানি জমে কৃষি জমি অনুপোযোগী হয়ে ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হচ্ছে। এ জনদূর্ভোগে মোঃ শাহ-জাহান মিয়া মেম্বার ও কৈতারা বাড়ির লোকজন পানি নিষ্কাশন বন্ধের প্রতিবাদ করলে তাদের ভয়ভীতি দেখানোসহ হুমকিধামকি দিচ্ছেন। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক ক্ষোভ, অসন্তোষ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।
এ ব্যাপারে অভিযোগকারী মোঃ শাহ-জাহান মিয়া মেম্বার বলেন, আমরা কয়েক প্রজন্ম ধরে এই রাস্তা ব্যবহার করে আসলেও হঠাৎ তারা পেশীশক্তি ব্যবহার করে রাস্তা বন্ধ করে মাছ চাষ শুরু করেছে। যার কারনে পানি নিষ্কাশন বন্ধ হওয়ায় বর্ষার মৌসুমে স্থানীয় মানুষ বিপাকে পড়ছে। আমি পুনরায় আগের মতো রাস্তার উম্মুক্ত করা ও পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানাচ্ছি।
বিজয়নগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ এইচ ইরফান উদ্দিন আহমেদ জানান, খাস জমি ভরাট করে কেউ পানি নিষ্কাশন বন্ধ করতে পারে না। নায়েব কে দায়িত্ব দেওয়া দেওয়া হয়েছে। খাস জমি আছে কি না দেখে বিস্তারিত জানানোর জন্য। ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com