সংবাদ শিরোনাম
সাইলোর মতো খাদ্যভান্ডার ছিলো বলে আমরা করোনা ও রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মতো সমস্যা গুলো অতিক্রম করতে পেরেছি; খাদ্য মন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার টানা বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে শেরপুরে বাড়ছে নদ-নদীর পানি তিস্তাপাড়ের ২ হাজার পরিবার পানিবন্দি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পৃথক স্থানে বজ্রপাতে দু’জন নিহত আশুগঞ্জে মাদক সেবন নিয়ে বাক-বিতন্ডার জেরে যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা পুলিশের উপর হিজড়াদের হামলা গ্রেফতার ৪ মাহিন্দ্র ট্রাক্টারের স্প্রিংয়ে গলা আটকে কৃষকের মৃত্যু বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কাবাডি টুর্নামেন্টে টানা চতুর্থবার চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ মুজিব মুর‍্যালে শ্রদ্ধা নিবেদনের মাধ্যমে ইবি বঙ্গবন্ধু পরিষদের কার্যক্রম শুরু সরাইলে ভূমি ও গৃহের দাবীতে ভূমিহীনদের মানববন্ধন

আ’লীগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিজয় ছিনিয়ে নেওয়ার শঙ্কা প্রকাশ করে শফিকুলের সংবাদ সম্মেলন

আ’লীগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিজয় ছিনিয়ে নেওয়ার শঙ্কা প্রকাশ করে শফিকুলের সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার//সময়নিউজবিডি
আগামী ১৭ অক্টোবর রোজ সোমবার অনুষ্ঠিতব্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পরিষদ নির্বাচনে নিজের জয় ছিনিয়ে নেওয়া হতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন জেলা পরিষদে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ্ব শফিকুল আলম এমএসসি।
গতকাল (১৫ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০ টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এ মন্তব্য করেন তিনি।
নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সাবেক পৌর চেয়ারম্যান যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি আলহাজ্ব শফিকুল আলম এমএসসি।
শফিকুল আলম এমএসসি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জোর জবরদস্তি করে আমার জয় ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য অবৈধ তৎপরতা শুরু করেছেন। যা এখন ওপেন সিক্রেট। আল মামুন সরকার দলীয় ক্ষমতা প্রয়োগ করে কেন্দ্র দখল করে ভোটারদের ভোট ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য ভোটারদের বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট গ্রহণে নির্বাচন কমিশনের পাশাপাশি সংবাদ মাধ্যমের সহযোগিতা কামনা করে শফিকুল আলম এমএসসি আরো বলেন, আল মামুন সরকার দলের সাধারন সম্পাদক হয়ে প্রকাশ্যে গ্রুপিং সৃষ্টি করে দলে বিভক্তি তৈরি করছে। ২০১৭ সালে জনপ্রতিনিধিদের ভোটে আমি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেও আমাকে বিদ্রোহী তকমা দিয়ে দলীয় পদপদবি থেকে শুরু করে সকল রাজনৈতিক কর্মকান্ড থেকে বঞ্চিত করেছেন আল মামুন সরকার। এছাড়াও বিগত উপজেলা পরিষদ ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কোটি কোটি টাকা মনোনয়ন বাণিজ্য করেছেন।
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com