সংবাদ শিরোনাম
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পৃথক স্থানে বজ্রপাতে দু’জন নিহত আশুগঞ্জে মাদক সেবন নিয়ে বাক-বিতন্ডার জেরে যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা পুলিশের উপর হিজড়াদের হামলা গ্রেফতার ৪ মাহিন্দ্র ট্রাক্টারের স্প্রিংয়ে গলা আটকে কৃষকের মৃত্যু বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কাবাডি টুর্নামেন্টে টানা চতুর্থবার চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ মুজিব মুর‍্যালে শ্রদ্ধা নিবেদনের মাধ্যমে ইবি বঙ্গবন্ধু পরিষদের কার্যক্রম শুরু সরাইলে ভূমি ও গৃহের দাবীতে ভূমিহীনদের মানববন্ধন সরাইলে দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকা ১৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত কমলঞ্জের চা বাগানে মর্টার শেল নিস্ক্রিয় করল সেনাবাহিনী ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছাত্রলীগ কর্মী এজাজ হত্যা মামলার দুই নম্বর আসামি জয়কে গ্রেফতার

সিসি ক্যামেরার আওতায় কমলগঞ্জ পৌরসভা

সিসি ক্যামেরার আওতায় কমলগঞ্জ পৌরসভা

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে অপরাধ নিয়ন্ত্রণ ও নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করতে পৌরসভাকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হচ্ছে। প্রথম ধাপে পৌরসভার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বসানো হচ্ছে ৩০টি ক্যামেরা। এতে চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই ও হত্যার মতো অপরাধ নিয়ন্ত্রণ হবে বলে আশাবাদ জনপ্রতিনিধি, প্রশাসন ও স্থানীয় বাসিন্দাদের। শুক্রবার বিকেলে কমলগঞ্জ পৌর এলাকার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় দেখা যায় পৌরসভার উদ্যোগে সিসি ক্যামেরা লাগানো আছে।জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরেই কমলগঞ্জ পৌরসভাকে নিরাপত্তার জন্য সিসি ক্যামেরা বসানোর দাবি করছিল পৌরবাসী। সেই দাবির প্রেক্ষিতে অবশেষে পৌর মেয়র মো. জুয়েল আহমেদ ২ লাখ টাকা ৮৫ হাজার টাকা ব্যায়ে গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পৌরসভায় সিসি ক্যামেরা বসানোর কাজ শুরু করেছেন। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই এই কাজ শেষ হবে বলে জানিয়েছে মেয়র।
পৌরবাজার ব্যবসায়ীরা বলেন, ‘পৌর শহরের নিরাপত্তাসহ সবার জানমালের নিরাপত্তায় এই সিসি ক্যামেরা অনেক উপকারে আসবে। তাছাড়া পৌর মেয়র ও পুলিশ এই সিসি ক্যামেরা সার্ব¶ণিক মনিটরিং করলে বাজার এলাকায় যানজট কমে আসবে।’ সচেতন মহল বলছেন মেয়রের এমন উদ্যোগ খুব প্রশংসনীয়।
কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, ‘এই সিসি ক্যামেরা স্থাপনের ফলে পৌর শহরে কোন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার সৃষ্টি হলে পুলিশ সহজেই অপরাধীদের খুঁজে বের করতে পারবে। সেই সাথে ডিজিটাল মনিটরিং এর মাধ্যমে শহরের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।
কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. জুয়েল আহমেদ বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে পৌরবাসীর দাবী ছিল সিসি ক্যামেরা বসানোর। আমি আমার সর্বস্ব দিয়ে চেষ্টা করি তাদের দাবী পূরন করার। সিসি ক্যামেরা বসানোর কাজ শেষ হলে বাজার এলাকাসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ এলাকা আইনখৃক্সখলা বাহিনীর নজরদারির মধ্যে থাকবে। আর এতে চুরি ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপরাধ অনেকটাই কমে আসবে। পৌর এলাকার মানুষের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে আমার এ উদ্যোগ গ্রহন করা।’
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com