সংবাদ শিরোনাম
নিখোঁজের ৪০ ঘন্টা পর সন্ধান মিললো বিজয়নগরের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রীতির  বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রীতি খন্দকার নিখোঁজ আগামীকাল আশুগঞ্জ ও বাঞ্ছারামপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সরাইলে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহের সমাপনী অনুষ্ঠান আপনাদের ঘামের দাম আমি রক্ত দিয়ে হলেও পরিশোধ করবো; সিঙ্গারবিলের জনসভায় জাবেদ পত্তন ইউনিয়নের সম্মান রক্ষায় জাবেদকে ভোট দেবে বলে মাশাউড়াবাসীর ঐক্যবদ্ধ অঙ্গীকার এবার রবীন্দ্রনাথের ‘হৈমন্তী’ হয়ে আসছেন ঐশিকা ঐশি দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর ফের ব্রাহ্মণবাড়িয়া তিতাস গ্যাস ফিল্ডের ১৪ নম্বর কূপ থেকে গ্যাস উত্তোলন শুরু উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: আখাউড়ায় মনির ও কসবায় ছাইদুর রহমান বিজয়ী বিজয়নগরে বজ্রপাতে এক যুবকের মৃত্যু

আশুগঞ্জে নামাজের মাসআলা নিয়ে মসজিদে হাতাহাতি, বাইরে সংঘর্ষ।। পুলিশসহ আহত-১৫

আশুগঞ্জে নামাজের মাসআলা নিয়ে মসজিদে হাতাহাতি, বাইরে সংঘর্ষ।। পুলিশসহ আহত-১৫

স্টাফ রিপোর্টার//সময়নিউজবিডি
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মসজিদের ভেতরে নামাজের মাসআলা নিয়ে কথা-কাটাকাটির জেরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে পুলিশসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।
গতকাল শুক্রবার (০৫ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১০টায় আশুগঞ্জ উপজেলার চরচারতলা গ্রামের মোল্লাবাড়ি ও কিছকি বাড়ি গোষ্ঠীর মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষের সময় হামলাকারীরা মসজিদেও ভাংচুর করে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আশুগঞ্জ উপজেলার চরচারতলা উত্তরপাড়া জামে মসজিদে ইমামতি করেন মোল্লাবাড়ির মাওলানা মহিউদ্দিন মোল্লা। শুক্রবার এশা ও তারাবিহ নামাজ শেষে ইমামের অনুমতি নিয়ে নামাজের কিছু মাসআলা নিয়ে মুসল্লিদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন কিছকি বাড়ির ঠিকাদার শফিকুর রহমান। এ নিয়ে মুসল্লিদের দুপক্ষের মধ্যে কথা-কাটাকাটি ও মসজিদের ভেতরে হাতাহাতি হয়। পরে নামাজ শেষে মসজিদের বাইরে উভয় পক্ষ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে পুলিশসহ অন্তত ১৫ জন আহত হন। হামলাকারীরা মসজিদেও ভাংচুর করে।
এ ব্যাপারে মসজিদের ইমাম মাওলানা মহিউদ্দিন মোল্লা বলেন, ‘তারাবিহ নামাজ শেষে কিছকি বাড়ির নেতা ঠিকাদার শফিকুর রহমান দুই মিনিট কথা বলতে আমার অনুমতি চাইলে আমি তাকে অনুমতি দেই। তিনি তার বক্তৃতায় এ মসজিদের কোনো মুসল্লিরই নামাজ হয় না বলে ফতুয়া দিলে উপস্থিত মুসল্লিরা এর প্রতিবাদ করেন। এতে শফিকুল ইসলামের বাড়ির লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে মসজিদসহ আমাদের বাড়ির লোকজনের ওপর হামলা করেন। এসময় আমাদের বাড়ির পাঁচজন গুরুতর আহত হন।’
অপরদিকে কিছকি বাড়ির বাসিন্দা শফিকুর রহমান বলেন, ‘আমি তারাবিহ নামাজ শেষে নিয়ম অনুযায়ী অনুমতি নিয়ে নামাজের কিছু জরুরি মাসআলার বিষয়ে ইমাম ও মুসল্লিদের দৃষ্টি আকর্ষণ করি। নামাজের প্রয়োজনীয় তাসবিহ পাঠের জন্য রুকু, সেজদা ও দাঁড়ানোতে পর্যাপ্ত সময় দান ও কাতার সোজা করা করার গুরুত্ব বিষয়ে খেয়াল দিতে ইমামকে অনুরোধ করি। এতে ইমাম ও তার লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে মসজিদের ভেতরেই আমাকে নাজেহাল করেন। পরে তারা আমার ও আমার এক ভাইয়ের বিল্ডিংয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করেন। আমার ব্যবহারের গাড়ি ও দুটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করেন।
এ ব্যাপারে আশুগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাহিদ আহম্মেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণ আনতে পুলিশ প্রায় ৩৫ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এসময় অফিসারসহ তিন পুলিশ আহত হন। ঘটনার পর থেকে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com