সংবাদ শিরোনাম
সম্প্রীতির বন্ধন; দূর্গোৎসবে শুভেচ্ছা উপহার হুইল চেয়ার পেলেন শারিরীক প্রতিবন্ধী হালিমা বেগম উচালিয়াপাড়া সার্বজনীন দুর্গাপূজা উদ্‌যাপন পরিষদ এর নারায়নী নমস্তুত দুর্গাপূজা এক্সেলেন্স অ্যাওয়ার্ডস ২০২২ অর্জন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কুমারী পূজার মধ্যদিয়ে পালিত হলো দুর্গোৎসবের মহা অষ্টমী সরাইলে ১০ হাজার টাকার জন্য গৃহবধূ খুন! শাশুরী আটক ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশের উপর হামলা মামলায় ১০ জনের কারাদণ্ড আশুগঞ্জে র‍্যাবের অভিযানে গাঁজাসহ এক মাদক কারবারি আটক ভৈরবে বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার আ’লীগ মনোনীত জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রার্থীর পক্ষে সরাইলে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে বিভিন্ন মন্ডপ পরিদর্শনে মোকতাদির চৌধুরী এমপি কমলগঞ্জে মামলা তুলে নিতে বাদিকে হুমকি

বিজয়নগরে দৃষ্টিনন্দন বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল স্থাপন

বিজয়নগরে দৃষ্টিনন্দন বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল স্থাপন

Advertisements

জহিরুল আলম চৌধুরী(টিপু)//সময়নিউজবিডি    

হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙ্গালী, মহান স্বাধীনতার স্থপতি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাম রয়েছে এদেশের লাখো কোটি মানুষের হৃদয়ে। এবার তার অমর স্মৃতির উদ্দেশ্যে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালটি শিল্পরূপ পেয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলায়।

উপজেলা চত্ত্বরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি মহোদয়ের নির্দেশনায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মেহের নিগার এর উদ্যোগে নির্মিত এ ম্যুরালটির উচ্চতা ১৫ ফুট প্রস্থ ৮ ফুট। উপজেলা প্রশাসনিক ভবনের সামনে চতুুুর্রভূজ আকৃতিতে স্থাপিত এ ম্যুরালটিতে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে জনগণের অভিবাদন গ্রহণকারী জননেতা বঙ্গবন্ধুকে।

গত শোকাবহ মাস আগস্টে শুরুতে এ ম্যুরালের নিমার্ণ কাজ শুরু হয়ে মাস ব্যাপী চলে এর নির্মাণ কাজ। বর্তমানে ম্যুরালটির চুনকার্যের কাজ বাকী রয়েছে। চলতি বছর শেষে  স্বাগত বছরেই শুরু হবে মুজিব বর্ষ। আর মুজিব বর্ষকে সামনে রেখেই বিজয়নগরে প্রথম নির্মিত হল বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, উপজেলায় প্রবেশ পথ থেকেই দৃষ্টি কাড়ে ম্যুরালটি। মেইন ফটক থেকে খুবই সুন্দর দেখায় দাঁড়িয়ে থাকা দৃষ্টিনন্দিত বঙ্গবন্ধুর ছবি সম্বলিত নির্মিত ম্যুরালটি।

এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী অফিসার  (ইউএনও) মেহের নিগার বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার নির্দেশে দেশে এসেছে মহান স্বাধীনতার ঘোষণাও। তিনি মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিধন্য এ উপজেলাতে নেই জাতির জনকের কোনো ম্যুরাল। তাই বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির প্রতি সম্মান জানাতে এ উপজেলায় একটি ম্যুরাল স্থাপন করা হয়েছে। যে ম্যুরালটি উপজেলায় আগত সর্বস্থরের মানুষের নজরে আসবে আর শিশু কিশোরদের মনে জাগ্রত হবে বঙ্গবন্ধু প্রতিচ্ছবি দেখে মুক্তিযুুুদ্ধের ইতিহাসের তাৎপর্য। বঙ্গবন্ধুকে আমি ভালবাসি আর ম্যুরাল নিমার্ণ করাটা আমার একটি স্বপ্ন ছিল। আজ আমি আমার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে সক্ষম হয়েছি। বঙ্গবন্ধুর এ প্রতিকৃতি নিমার্ণ করতে পেরে নিজেকে আজ ধন্য মনে করছি।

ইনাম/সময়নিউজবিডি টোয়েন্টিফোর।      

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com