সংবাদ শিরোনাম
বিজয়নগরে অর্থ সহায়তা আনতে গিয়ে আঙ্গুল হারানো রিনার দায়িত্ব নিলেন উপজেলা প্রশাসন   সরাইলে হত্যাসহ অর্ধডজন মামলার আসামী গ্রেপ্তার ফেনী থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তান্ডবের ঘটনায়  নেতা গাজী ইয়াকুব গ্রেপ্তার আশুগঞ্জে র‍্যাবের অভিযানে মোবাইল ফোনের টাওয়ারের যন্ত্রপাতিসহ গ্রেপ্তার- ১।। প্রাইভেটকার জব্দ   ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় র‍্যাবের অভিযানে মোটরসাইকেল চোর সিন্ডিকেটের এক সদস্য গ্রেপ্তার।। ৩ টি মোটরসাইকেল উদ্ধার  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জুয়ারিসহ ৮ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার  রুচিশীল সব পাঞ্জাবি নিয়ে ঈদ বাজারে জাবিয়া বিগ বাজার ফলোআপঃ নাসিরনগরে হিলিপের কাজে চলছে হরিলুট, দেখার কেউ নেই হেফাজতের তাণ্ডব- র‍্যাবের অভিযানে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুই তাণ্ডবকারীকে গ্রেফতার  ব্রাহ্মণবাড়িয়া খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার ওসি হিসেবে শাহজালালের যোগদান
সরাইলে ৩৯ কোটি টাকা ব্যয়ে নদীর তীর রক্ষা বাঁধ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন

সরাইলে ৩৯ কোটি টাকা ব্যয়ে নদীর তীর রক্ষা বাঁধ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন

সরাইল প্রতিনিধি //সময়নিউজবিডি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল মেঘনা নদী তীরবর্তী অরুয়াইল ইউপির রাজাপুর গ্রাম থেকে সিঙ্গাপুর গ্রাম পর্যন্ত ৩৯ কোটি টাকা ব্যয়ে ‘নদী তীর রক্ষা বাঁধ’ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে।
শুক্রবার (৮ নভেম্বর) বিকেলে আনুষ্ঠানিক এ কাজের উদ্বোধন করেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী গৌরপদ সূত্রধর। এসময় উপস্থিত ছিলেন, অরুয়াইল ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হাকিম, নির্মাণ কাজ বাস্তবায়নকারী ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ‘ডলি কনস্ট্রাকশন’ এর ইঞ্জিনিয়ার ইকরামুল হক, অরুয়াইল ক্লাস্টারের প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আসিফ ইকবাল খোকন সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও পানি উন্নয়ন বোর্ড ব্রাহ্মণবাড়িয়া অঞ্চলের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।
স্থানীয়রা জানান, এ বাঁধ নির্মাণে এখানকার রাজাপুর, কাকরিয়া, সিঙ্গাপুর ও চর কাকরিয়া এই চার গ্রামের অন্তত ১৫ হাজার গ্রামবাসীর দীর্ঘ বছরের দুঃখ লাঘব হবে। এ বাঁধ নির্মাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানান চার গ্রামের মানুষ। পাশাপাশি এ বাঁধের উদ্যোক্তা হিসেবে বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হাকিম ও সাবেক সাংসদ অ্যাডভোকেট জিয়াউল হক মৃধার ভূয়সী প্রশংসা করেন গ্রামবাসী।
বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হাকিম বলেন, এখানকার নদী ভাঙ্গনে আমার বাপ-দাদার ভিটামাটি ১৯৭২ সালে বিলিন হয়ে গেছে। মসজিদ, মাদ্রাসা ও কবরস্থান সহ রাজাপুর গ্রামের শত শত বাড়ি নদী গর্ভে তলিয়ে গেছে। আমার অঙ্গীকার ছিল আমাদের মতো এখানকার নদী তীরবর্তী গ্রামগুলোর আর কোন পরিবার যেন ভিটামাটি হারা না হন। 
ব্রাহ্মণবাড়িয়া পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা যায়, মেঘনা নদী তীরবর্তী রাজাপুর থেকে সিঙ্গাপুর গ্রাম এলাকা পর্যন্ত ৩৯ কোটি ৩৭ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ১২০০ মিটার দৈর্ঘ্য নদী তীর রক্ষা বাঁধ নির্মাণ হবে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্ত্বাবধানে এ কাজ তিন স্তরে বাস্তবায়ন হবে। প্রথম ও দ্বিতীয় স্তরের টেন্ডার পেয়েছে ঢাকার মেসার্স ডলি কনস্ট্রাকশন নামে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।

ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর। 

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com