আত্মগোপনে টেকনাফের শীর্ষ ইয়াবা ব্যবসায়ী করিম আত্মগোপনে ; গ্রেফতার আতঙ্কে সিন্ডিকেট সদস্যের দৌড়ঝাঁপ

আত্মগোপনে টেকনাফের শীর্ষ ইয়াবা ব্যবসায়ী করিম আত্মগোপনে ; গ্রেফতার আতঙ্কে সিন্ডিকেট সদস্যের দৌড়ঝাঁপ

বিশেষ প্রতিবেদক//সময়নিউজবিডি, কক্সবাজার

দেশ জুড়ে যখন মাদক বিরোধী জিরো টলারেন্সে অভিযান চলছে এর মধ্যেও কক্সবাজার টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা জাদিমোড়া  বৃটিশপাড়া এলাকার সেলিমের পুত্র করিমের অপ্রতিরোধ্য গতিতে মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছিল। তার এই মাদক ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের উৎপাতে আতঙ্কের মধ্যে দিনরাত পার করছে জাদিমুরা’র  বৃটিশপাড়া এলাকায় মানুষ । সবেমাত্র ১৮-২০ বছর বয়সী এসব যুবক মাদক ব্যবসায়ীয় জড়িয়ে পড়ার এনিয়ে রীতিমতো চিন্তিত হয়ে পড়েছে টেকনাফের অভিভাবক মহল।
সম্প্রতি টেকনাফে বৃটিশ পাড়া এলাকায় ইয়াবাকাবারী বাড়ি এবং ছেলেদের বহু অপকর্মের আশ্রয়-পশ্রয়দাতা সেলিমের ছেলে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী করিম বিন সামাদ করিম প্রকাশ গুটি করিম (২০) প্রশাসনের ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকায় তার অন্যান্য সহযোগীরা বেপরোয়া হয়ে ওঠেছে। করিমের পরিবারের অনেক সদস্যও মাদক ব্যবসায় জড়িত বলে অনুসন্ধান সুত্রে জানা গেছে। এমতাবস্থায় দ্রুত চিহ্নিত এসব মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তারের করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে স্থানীয়রা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কক্সবাজার সিটি কলেজের ইন্টারমিডিয়েটের ছাত্র মোঃ করিম। বিশ বয়সী এই কিশোরের বিলাসী জীবনের গোপন রহস্য মিডিয়ায় প্রকাশ হয়ে যাওয়ার পর আত্মগোপনে চলে গেছে। বন্ধুমহল থেকে জানাযায়, করিম গ্রেফাতর আতংকে আছে। সবার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে। তাকে প্রায়ই মোটর সাইকেলবহর নিয়ে বন্ধুদের সাথে শহরের অলিগলি, বিশেষভাবে কলাতলীর অভিজাত হোটেলে আসা যাওয়া স্বাভাবিক বিষয় ছিল। মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশের পর থেকে আর তাকে কলেজে বা শহেরর কোথাও দেখা যাচ্ছেনা। এমনকি ফেসবুক ডিঅ্যাকটিব, মোবাইল ফোন বন্ধ। সংবাদ প্রকাশের জের ধরে বিভিন্নভাবে প্রতিবেদককে দেখা নেয়ার প্রচ্ছন্ন হুমকিও দিয়ে যাচ্ছে তার ইয়াবা সাম্রাজ্যের গ্যাং।

আরো জানা গেছে, করিমের অন্যতম সহযোগী হলেন কক্সবাজার নুনিয়ারছড়া এলাকার শিহাব। শিহাবও কক্সবাজার সিটি কলেজের ছাত্র। অল্প দিনে পরিবর্তন হয়েছে শিহাবের বসতবাড়িও। বাড়ির ভিতরে অনন্য রাজকীয় স্টাইল। করিমের প্রায় টাকা জমা থাকত শিহাবের বাসায়। এসব বিষয় শিহাবের পরিবারও জানত। অভাবের সংসার হওয়ায় পরিবারের লোকজনও মেনে নিয়েছে শিহাবের অন্য স্টাইলে চলাফেরা। এই অল্প বয়সে বেশ কয়েকটি গাড়িও নিয়েছে শিহাব। নিজেও চালায় দামী বাইক। 
করিমের সিন্ডিকেটে আরো রয়েছে হ্নীলা বৃটিশ পাড়া এলাকার আয়ুব আলী ওরফে আয়ুব খান, একই এলাকার তাবারক, শহিদ মাহামুদ, জাবেদ আলী, মো.আমিন,রিদুয়ানুল আমিন, সেন্টমার্টিনের ওসমান গণি, টেকনাফের আব্দুর রহমান এবং তার ভাই শফিক ও কক্সবাজারের নুনিয়া ছড়ার শিহাব।
এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন বলেন, মো. করিমসহ তার পুরো সিন্ডিকেটের বিষয়ে অনেক তথ্য পাওয়া গেছে। তারা সবাই নজরদারিতে রয়েছে।
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।    

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com