সংবাদ শিরোনাম
দেশব্যাপী সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রতিবাদে কমলগঞ্জে বিক্ষোভ সমাবেশ, মানববন্ধন ও প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান “সতত সরাইল” লিটল ম্যাগাজিনের মোড়ক উম্মোচন র‍্যাবের অভিযানে গাজীপুর থেকে হত্যা মামলার দুই আসামীকে গ্রেপ্তার  সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখার লক্ষ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিএমএ এর মানববন্ধন র‍্যাবের অভিযানে কসবা থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন হিযবুত তাহরীর সদস্য গ্রেফতার  কমলগঞ্জে ধলাই নদীর বাঁকে বাঁকে বালু উত্তোলনের হিড়িক।। অবৈধ বোমা মেশিনের উচ্চ শব্দ; হুমকিতে পরিবেশসহ জনজীবন কমলগঞ্জে সড়ক পাকাকরণের দাবীতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন  ধর্মের নামে বাংলাদেশের মাটিতে কাউকে নৈরাজ্য সৃষ্টি করতে দেওয়া হবে না; ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নাঈম ১৭ বছর পর আজ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা।। পদ প্রত্যাশীদের ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা  সাবেক ছাত্রনেতা পারভেজ’র উদ্যোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সম্প্রীতি মিছিল-মানববন্ধন অনুষ্ঠিত
সরাইলে দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় পালাতে গিয়ে একজন নিহত ও পুলিশসহ আহত-৩০

সরাইলে দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় পালাতে গিয়ে একজন নিহত ও পুলিশসহ আহত-৩০

বিশেষ প্রতিবেদক//সময়নিউজবিডি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার পাকশিমুল ইউনিয়নের পরমান্দপুর গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জেরধরে দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় দৌড়ে পালাতে গিয়ে সামছুল হক (৫৫) নামে একজন নিহত ও পুলিশ সদস্যসহ অন্তত আরো ৩০ জন আহত হয়েছে। নিহত সামছুল হক ঐ গ্রামের মৃত সওদাগর চৌধুরীর ছেলে।
শুক্রবার (১৩ মার্চ) দুপুরে সরাইল উপজেলার পাকশিমুল ইউনিয়নের পরমান্দপুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।    
পুলিশ ও এলাকাবাসীর জানায়, সরাইল উপজেলার পাকশিমুল ইউনিয়নের পরমান্দপুর গ্রামের জয়নাল আবেদীন ও নুর আলীর মধ্যে বিভিন্ন বিরোধ চলে আসছিল। দীর্ঘদিনের বিরোধের জেরধরে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দুু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। 
এদিকে গতকালের সংঘর্ষের ঘটনায় ফের আজ শুক্রবার দুপুরে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন উভয় পক্ষের সমর্থকরা। প্রথমে স্থানীয় বাসিন্দাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যর্থ হয়। পরে ঘটনার খবর পেয়ে সরাইল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। এসময় পুলিশের ভয়ে দৌড়ে পালাতে গিয়ে সামছুল হক চৌধুরী নিহত হয় বলে জানান স্থানীয়রা। সংঘর্ষে পুলিশসহ উভয় পক্ষের অন্তত আরো ৩০ জন আহত হয়। আহতদের স্থানীয়ভাবে ও সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সহ জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।       
আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন- সরাইল থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এস.আই) মঞ্জুরুল আহমেদ, পিএসআই জাহিদল ইসলাম, কনস্টেবল শাহাদাত হোসেন, আঃ মালেক, আফাজ উদ্দিন,রুকন উদ্দিন ও ইরফান সরকার।
সরাইল থানার ওসি সাহাদাত হোসেন টিটো হত্যার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে কয়েকজন পুলিশও আহত হয়েছে। তিনি বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করতে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পরবর্তী সংঘর্ষ এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ওসি আরো বলেন, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে লাশ পাঠানো হয়েছে। তবে নিহত সামছুল হক চৌধুরী স্টোক করে মারা গেছেন বলে জানান ওসি।    
অপরদিকে সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান, সরাইল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব রফিক উদ্দিন ঠাকুর ও সরাইল থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহাদাত হোসেন টিটো।                         
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।    

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com