সংবাদ শিরোনাম
কমলগঞ্জে ৪ মাসেও মাঠকর্মীরা ভাতার টাকা পায়নি।। ইউএনও বরাবর লিখিত অভিযোগ সোয়া দুই বছর পর চাতলাপুর অভিবাসন কেন্দ্র দিয়ে ভারত-বাংলাদেশ যাত্রী পারাপার শুরু কবি নজরুল সাহিত্য পদক পেলেন কথাসাহিত্যিক আমির হোসেন মহান মুক্তিযুদ্ধের পর পদ্মা সেতুর সফলতা জাতির জন্য এক গৌরবোজ্জ্বল অধ্যায়; আল মামুন সরকার ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার উদ্যোগে মশা নিধন কার্যক্রমের উদ্বোধন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার আয়োজনে বর্ণাঢ্য র‍্যালী কমলগঞ্জে ট্র্যাকিং ডিভাইস সহ লজ্জাবতী বানর অবমুক্ত করন কর্মসূচি কমলগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর ১০টি উদ্ভাবনী উদ্যোগ নিয়ে প্রশিক্ষণ কর্মশালা চিকিৎসা শেষে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ফিরলেন আল-মামুন সরকার কমলগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে ত্রাণ সমাগ্রী বিতরণ
ক্রসফায়ারের ভয় দেখিয়ে অর্থ আদায়ের মামলায় ৫ পুলিশ সদস্যকে ক্লোজ

ক্রসফায়ারের ভয় দেখিয়ে অর্থ আদায়ের মামলায় ৫ পুলিশ সদস্যকে ক্লোজ

স্টাফ রিপোর্টার//সময়নিউজবিডি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় ক্রসফায়ারের ভয় দেখিয়ে অর্থ আদায়ের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলার অভিযুক্ত আখাউড়া থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মতিউর রহমানসহ ৫ পুলিশ সদস্যকে ক্লোজ করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) সকালে ক্লোজ হওয়া ৫ পুলিশ সদস্যের মধ্যে উপ-পরিদর্শক (এসআই) মতিউর রহমানকে আখাউড়া থানা থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ লাইনে পাঠানো হয়।
এদিকে একই অভিযোগে অভিযুক্ত আখাউড়া থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) হুমায়ুন কবিরকে অসুস্থতাজনিত কারণে অনেক আগেই জেলা পুলিশ লাইনে ক্লোজ করে পাঠানো হয়। 
অপরদিকে, সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) খোরশেদ ও কনস্টেবল প্রশান্ত এবং সৈকত ইতোমধ্যে বদলী হয়ে অন্যত্র চলে যাওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।
জেলা পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (আখাউড়া – কসবা সার্কেল) মিজানুর রহমান ভুইয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শৃঙ্খলা বিরোধী কাজ করার অভিযোগে তাদেরকে ক্লোজ করা হয়েছে। তদন্তপূর্বক অভিযোগের সত্যতা পেলে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 
জানা যায়, গতকাল বুধবার দুপুরে আখাউড়া পৌর এলাকার মসজিদ পাড়ার বাসিন্দা হারুন মিয়া বাদী হয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (আখাউড়া) আদালতে ক্রসফায়ারের ভয় দেখিয়ে অর্থ আদায়ের অভিযোগ এনে আখাউড়া থানা পুলিশের ৫ জন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। আদালত অভিযোগটি ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ সুপারকে তদন্ত সাপেক্ষে আগামী ৩০ কার্য দিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন বিজ্ঞ আদালত। 
উল্লেখ্য,আখাউড়ার পৌর শহরের মসজিদ পাড়ার বাসিন্দা হারুনের প্রতিবেশী হাসিনা বেগম ওরফে চিকুনী বেগম এবং তার মেয়ে তানিয়া ও তানজিনা অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের সহায়তায়  দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসা করে আসছে। হারুন প্রতিবেশী চিকুনীর 
মাদক ব্যবসায় বাঁধা দিলে চিকুনী ক্ষুদ্ধ হয়ে পুলিশ সদস্যদের হারুনের পিছনে লেলিয়ে দেন। এর ধারাবাহিকতায় গত ২৬ মে গভীর রাতে অভিযুক্ত পাঁচ পুলিশ সদস্য নাটকীয়ভাবে চিকুনী বেগমকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে পরস্পর যোগসাজশে পূর্বপরিকল্পিতভাবে ওই পুলিশ সদস্যরা হারুনের বাড়িতে প্রবেশ করে তল্লাশির নামে তাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করেন।
এ সময় ক্রসফায়ার ও হত্যার ভয় দেখিয়ে ঘরে থাকা নগদ ৪০ হাজার টাকা বলপূর্বক ছিনিয়ে নেয়। এ ছাড়াও তারা ঘরের আসবাবপত্র উলট পালট করে এক ভীতিকর অবস্থার সৃষ্টি করে। পরবর্তীতে ওইদিনই ভোর চারটার দিকে পুনরায় ওই পুলিশ সদস্যারা এসে হারুন ও তার স্ত্রীকে মিথ্যা মাদক মামলা ও যাবজ্জীবন কারাদন্ডের ভয় দেখিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে এক লাখ টাকা দাবি করেন। তা না হলে তাদেরকে মাদক মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে চালান দেয়া হবে বলে হুমকি দেন। ওই সময় তারা প্রাণ রক্ষায় অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের পঞ্চাশ হাজার টাকা দিয়ে রফা দফা করলে হারুন ও তার স্ত্রীকে ছেড়ে দেয় এবং চলে যাওয়ার সময় বিষয়টি উর্ধ্বতন অফিসারদের জানালে হারুনকে ক্রসফায়ার দেয়া হবে বলে হুমকি দিয়ে যান।

ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর। 

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com