সংবাদ শিরোনাম
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ থেকে পড়ে আইনজীবী নিহত নবীনগরে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ এক মাদক কারবারি আটক  করোনার সম্মুখ যোদ্ধা ডিসি হায়াত উদ-দৌলা খাঁন ও তার পরিবারের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুকুরে পানিতে ডুবে দুই শিশুর করুণ মৃত্যু  বিজয়নগরে নিখোঁজের ৪দিন পর শিশুর মরদেহ উদ্ধার  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আজ করোনায় আক্রান্ত- ১৩৭ ও মৃত্যু -২  আজ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনায় আক্রান্ত- ৮৩ ও মৃত্যু -২  যতোদিন মাদ্রাসায় জাতীয় সংগীত গাওয়া না হবে ততোদিন সেগুলো খুলতে দেবেন না – মোকতাদির চৌধুরী এমপি  নাসিরনগরে অসুস্থ মানুষের মধ্যে আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ সরাইলে প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি।। একজন গ্রেপ্তার
গিনেস বুকে নাম অন্তর্ভুক্ত করে বিশ্ব রেকর্ড করলেন নাসিরনগরের পার্থ

গিনেস বুকে নাম অন্তর্ভুক্ত করে বিশ্ব রেকর্ড করলেন নাসিরনগরের পার্থ

গিনেস বুকে নাম অন্তর্ভুক্ত করে বিশ্ব রেকর্ড করলেন নাসিরনগরের পার্থমোঃ আব্দুল হান্নান//নাসিরনগর প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার ফান্দাউক গ্রামের প্রয়াত জগদীশ চন্দ্র দেবের বিএসএস পড়ুয়া কনিষ্ঠ পুত্র ও ফান্দাউক বাজারের ব্যবসায়ী পার্থ চন্দ্র দেব পৃথিবীর সবচেয়ে বড় দৈর্ঘ্যের সেফটি পিনের চেইন তৈরী করে গিনেস বুকে নাম লিখিয়েছেন। যা এখন বিশ্ব রেকর্ড। চলতি বছরের ১২ ফেব্রুয়ারি রাত ৯: ০১ মিনিটে সেই মাহেন্দ্রক্ষণ, যখন গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম লেখালেন অদম্য যুবক পার্থ চন্দ্র দেব। 
নিজেদের পারিবারিক ব্যবসা দেখা শোনা  ও পড়াশোনার পাশাপাশি নতুন কিছু করার তাগিদ অনুভব করে পার্থ। গুগলে সার্চ করে জানতে পারে ২০১৮ সালে ভারতের গুজরাটে হার্শা নান ও নাভা নান ১৭৩৩.১ মিটার দৈর্ঘ্যের পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ও দীর্ঘ চেইন তৈরী করে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম অন্তর্ভুক্ত করে। এই রেকর্ড অতিক্রম করে নতুন করে বিশ্ব রেকডের্র স্বপ্ন বাস্তবায়নের দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে কাজ শুরু করেন পার্থ দেব। নিজেদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ১ লক্ষ ৮৭ হাজার ৮শত ২৩ টি  সেফটিপিন একের পর এক গেঁথে গেঁথে দিন রাত পরিশ্রম করে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ডে রেকর্ড করা ভারতের সেই সেফটিপিন চেইনটির চেয়ে ৬৭০ মিটার দীর্ঘ একটি চেইন তৈরী করেন পার্থ।
এ চেইন তৈরীতে পার্থ চন্দ্র দেবের সময় লেগেছে ৪৫ দিন, ২৪১ ঘন্টা ৪২ মিনিট। সময়ের হিসাব করার জন্য সিসি ক্যামেরার ফুটেজ ব্যবহার করা হয়েছে। পার্থ দেব কারো সাহায্য ছাড়া নিজেই চেইন তৈরির পুরো কাজ সম্পন্ন করেন এবং গত  ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং শুক্রবার  তার প্রায় আড়াই মাইল দীর্ঘ সেফটিপিন দ্বারা তৈরী চেইনটি ফান্দাউক শ্রী শ্রী পাগল শংকর মন্দির প্রাঙ্গণে প্রদর্শন করেন। সে সময় ফান্দদাউক গ্রামের কৃতি সন্তান প্রভাষক রাজীব আচার্য্য, পল্লব হালদার এবং সার্ভেয়ার মারজান শাহ্কে সাথে নিয়ে চেইনটির দৈঘ্যের্র পরিমাণ নির্ধারণ করা হয় ২৪০১.৮৩ মিটার। এরপর সফলভাবে সকল পরীক্ষা নিরিক্ষা সম্পন্ন করে ই-মেইল এর মাধ্যমে সকল ডেটা প্রেরণ করা হয় গিনেস বুক কতৃর্পক্ষের কাছে। পরে গিনেস বুক কর্তৃপক্ষ সকল রকম যাচাই বাছাই শেষে পার্থ চন্দ্র দেবের ২৪০১.৮৩ মিটার দৈর্ঘ্যের সেফটিপিন চেইনটি গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ডে রেকর্ড হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করেন। যা বর্তমানে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় দৈর্ঘ্যের সেফটিপিন চেইন। 
ইতিমধ্যে গিনেস বুক কতৃর্পক্ষ বিশ্ব রেকর্ডের স্বীকৃতিস্বরূপ একটি “সার্টিফিকেট” পার্থ চন্দ্র দেবের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ফান্দাউক গ্রামের নিজ বাসার ঠিকানায় পাঠিয়েছেন। যা তিনি হাতেও পেয়েছেন। 

এদিকে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ডে রেকর্ড  হিসেবে নিজের তৈরি সেফটিপিন চেইনটি অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় অত্যন্ত খুশি পার্থ চন্দ্র দেব। পার্থ সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর ডটকম এর এ প্রতিবেদককে জানান, চেইনটি তৈরীতে সাহস ও অনুপ্রেরণা দিয়েছেন তার বড় ভাই জয়ন্ত চন্দ্র দেব ও তার স্ত্রী। গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে পার্থ চন্দ্র দেবের নাম অন্তর্ভুক্তিতে গৌরবান্বিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া তথা নাসিরনগর উপজেলাবাসী।
ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর। 

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com