সংবাদ শিরোনাম
তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে সরাইল ও নবীনগরে চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের ভরাডুবি প্রবাসী পিতার ভোট দিতে এসে পুত্র আটক আগামীকাল সাহিত্য একাডেমির নানান আয়োজনে বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশান দিবস আগামী ৫ জানুয়ারি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন।। কাল থেকে আ’লীগের প্রার্থী বাছাই শুরু নাসিরনগরে যু্বলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত সরাইল উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদের দল থেকে বহিস্কার বিজয়নগরে ১০ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৭৫ জন ও অন্যান্য পদে ৪৬৩ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা নাসিরনগরে সাপ আতঙ্ক নিয়ে উপজেলা প্রশাসনের প্রেস ব্রিফিং ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ দুই মাদক কারবারি আটক  সততা ও ন্যায় পরায়ণতার মূর্তপ্রতীক ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক মরহুম আলী আজম ভূইয়া; আল-মামুন সরকার
বিজয়ের মাস ও মুজিব শতবর্ষে বিজয়নগরে রাজাকারের নামে থাকা রাস্তার নাম পরিবর্তন করে শহীদ মুক্তিযোদ্ধার নামে করার দাবি

বিজয়ের মাস ও মুজিব শতবর্ষে বিজয়নগরে রাজাকারের নামে থাকা রাস্তার নাম পরিবর্তন করে শহীদ মুক্তিযোদ্ধার নামে করার দাবি

স্টাফ রিপোর্টার//সময়নিউজবিডি
বিজয়ের মাস ও মুজিব শতবর্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে কুখ্যাত রাজাকার দেলোয়ার হোসেনের নামে থাকা উপজেলার খাদুরাইল গ্রামের সড়কটির নাম পরিবর্তন করে একজন শহীদ মুক্তিযোদ্ধার নামে নামকরনের জন্য জেলা প্রশাসকের কাছে আবেদন করেছেন বিজয়নগর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার সার্জেন্ট (অবঃ) তারা মিয়া। গত ২১ ডিসেম্বর সোমবার তিনি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এই আবেদন করেন।আবেদনের অনুলিপি স্থানীয় সংসদ সদস্য র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, পুলিশ সুপার, উপ-পরিচালক এন.এস.আই, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, বিজয়নগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে প্রদান করা হয়।
আবেদনে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার সার্জেন্ট (অবঃ) তারা মিয়া বলেন, উপজেলার ইছাপুরা ইউনিয়নের খাদুরাইল গ্রামের মৃত ফুল মিয়ার ছেলে দেলোয়ার হোসেন মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে ইছাপুরা ইউনিয়নের শান্তি কমিটির সভাপতি ছিলেন। এ সময় তিনি সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতন, তাদের বাড়ি-ঘরে অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটে সক্রিয় ভূমিকা রাখেন। তার নির্দেশে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে আড়িয়ল বাজারের দক্ষিণ পাশে ব্রীজের গোড়ায় উপজেলার সাটিরপাড়া গ্রামের আবদুল গফুর, আবদুল হাকিম, আবদুল মালেক, রামচন্দ্রপুর গ্রামের দুধ মিয়া সর্দার, খোদারিয়া গ্রামের শহীদ চৌধুরীসহ মোট সাতজন মুক্তিকামী নিরীহ মানুষকে ব্রাশ ফায়ার করে হত্যা করা হয়।
দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭২ সালে দালাল আইনে কুখ্যাত রাজাকার দেলোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থানায় মামলা হলে ওই মামলায় রাজাকার দেলোয়ার হোসেন ৩ মাস ১০ দিন কারাবাস করেন। আবেদনে তিনি বলেন, রাজাকার দেলোয়ার হোসেনের নামে থাকা সড়কটির নাম পরিবর্তন করে উপজেলার একজন শহীদ মুক্তিযোদ্ধার নামে নামকরনের দাবিতে গত ৯ ডিসেম্বর বেলা ১১টায় উপজেলার চম্পকনগর বাজারে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করে উপজেলার সর্বস্তরের মুক্তিযোদ্ধারা।আবেদনে তিনি বিজয়ের মাসে ও মুজিব শর্তবর্ষে রাজাকার দেলোয়ার হোসেনের নামে থাকা সড়কটির নাম পরিবর্তন করে উপজেলার একজন শহীদ মুক্তিযোদ্ধার নামে নামকরনের দাবি জানান।এ ব্যাপারে বিজয়নগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের প্রশাসক কে.এম ইয়াছির আরাফাত সাংবাদিকদের বলেন, আমি এই উপজেলায় নতুন যোগদান করেছি। এ ব্যাপারে দ্রুত প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।

ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com