সংবাদ শিরোনাম
নবীনগরে এক অজ্ঞাত মরদেহ উদ্ধার পৌরসভার মেয়র পদে নির্বাচন; ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দলীয় মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন আ’লীগের ৩২ প্রার্থী ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১৪ জুয়ারি-মাদকসেবী গ্রেপ্তার নাসিরনগরে রাতের আধারে প্রধানমন্ত্রীর গৃহহীন প্রকল্প দখল।। ৬ জনের নামে মামলা।। গ্রেফতার-৪ রেললাইনের পাশ থেকে গলাকাটা অজ্ঞাত মরদেহের পরিচয় মিলেছ।। সে অটো চালক অসুস্থ মোহাম্মদ হানিফের শয্যাপাশে পৌর মেয়র নায়ার কবির জনপ্রতিনিধি ও সরকারি কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে দেশের উন্নয়নের গতি আরও ত্বরান্বিত করতে হবে ; এমদাদ উল্লাহ মিয়ান পৌরসভার মেয়র পদে নির্বাচন; ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তিন পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনলেন ৩৮ জন ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার মেয়র পদে আ’লীগের মনোনয়ন ফরম কিনছেন সৈয়দ মিজানুর রেজা।। সকলের দোয়া ও সহযোগীতা কামনা বিজয়নগরে একটি মুরগীবাহী পিকআপ আটককে মুরগী লুটপাট।। নগদ লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই।। আহত- ৩
ঢাকা দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি হচ্ছেন কাউন্সিলর আবু আহমেদ মান্নাফী

ঢাকা দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি হচ্ছেন কাউন্সিলর আবু আহমেদ মান্নাফী

ফয়সল বিন সিদ্দিক//সময়নিউজবিডি  

আগামী ৩০ নভেম্বর সম্মেলনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি হচ্ছেন আবু আহমেদ মান্নাফী। বর্তমানে তিনি এই কমিটির সিনিয়র সহ সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। দলীয় দায়িত্বশীল একটি সূত্র এমনটিই জানিয়েছে। তারা আরো জানিয়েছেন মহান মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুর সাথে রাজনীতি ও দলীয় প্রধান শেখ হাসিনাসহ নেতাকর্মীদের সাথে রাজনীতির সাথে দীর্ঘ দিনের পরিক্ষিত নেতা হিসেবে ক্লিন ইমেজের প্রার্থী হিসেবে আবু আহমেদ মান্নাফী এখন গুড বুকে রয়েছেন।
বিভিন্ন প্রাপ্ত সূত্রে জানাগেছে, ১৯৫৪ সালে ভাসানীর নেতৃত্বে  নৌকা প্রতীকের পক্ষে নির্বাচনের মাঠে সেøাগান তুলে কিশোর আবু আহমেদ মান্নাফী রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। ১৯৬৪ সালের নবাবপুর রোডের রথখোলায় যখন বঙ্গবন্ধু আসেন তখন সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেন। ১৯৬৭ সালে রাজধানীর বর্তমান ওয়ারী থানা তখন ওয়ারী ইউনিয়ন পরিষদে অন্তভুক্ত। আবু আহমেদ মান্নাফী সেই ওয়ারী ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে রাজনীতির নেতৃত্বে আসেন। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় সরাসরি যুদ্ধে অংশ নেন এবং গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। সম্মুখ যুদ্ধে জীবন বাজি রেখে পাক বাহিনীদের মোকাবেলা করেন। ১৯৭১ সালের ৬  ডিসেম্বর  কুমিল্লার চান্দিনায় পাকিস্তানি বাহিনীর সাথে সম্মুখ যুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। ১৯৯৫ সালে রাজধানীতে মেয়র হানিফের  নেতৃত্বে জনতার মঞ্চে নেতৃত্ব দেন তিনি।
বিএনপি-জামাত জোট সরকারের শাসনামলে একুশে আগস্ট দলীয় তৎকালিন নেত্রী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  জনসভায় গ্রেনেড হামলা হয় সেই গ্রেনেড হামলায় আবু আহমেদ মন্নাফী বোমার স্প্রিন্টারে আহত হন। আবু আহমেদ মন্নাফীর বিরুদ্ধে বিএনপির শাসনামলে ১৫-১৬ টি রাজনৈতিক মামলা ঘটনা ঘটেছে এতে আসামি হয়ে তিনি দুঃসহ জীবন যাপন  করেও রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ এলাকা ওয়ারী নবাবপুর রোড গুলিস্থানসহ আশপাশের এলাকায় নেতাকর্মীদের নিয়ে রাজনীতির মাঠে সক্রিয় ভুমিকা পালন করেন। ২০০৩ সালে বিএনপি জামায়াত জোট সরকার বিরোধী দলীয় কর্মসূচী পালনে বাধা প্রদান করলে রাজধানীতে মশাল মিছিল নিশেষ করে তৎকালিন  আইন পাশ করে। এই আইন  অমান্য করে মশাল মিছিল করেন আবু আহমেদ মন্নাফীর নেত্রীত্বে নেতাকর্মীরা গুলিস্থান নবাবপুর রোডসহ আশপাশের এলাকায়।  কমিশনার নির্বাচিত হবার পর ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন  আবু আহমেদ মন্নাফী। ২০১৭ সালে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) ৩৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নির্বাচিত হন আবু আহমেদ মান্নাফী।
এসব বিষয়কে আমলে নিয়েই আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড ইতিমধ্যে আবু আহমেদ মান্নাফীকে বিভিন্ন দিক নিদের্শনা দিয়েছেন বলেও প্রকাশ পেয়েছে।


ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।     

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com