সংবাদ শিরোনাম
আগামীকাল ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামীলীগের বিশেষ সভা ফের দুর্বৃত্তদের আগুনে পুড়লো বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকারের বাসভবন সরাইলে  ৯টি সরকারি গাছ কেটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা সরাইলে সরকারি জায়গা দখল করে মার্কেট নিমার্ণ  আখাউড়ায় ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে বন্ধ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চালু হয়েছে বিনামূল্যে বঙ্গবন্ধু অক্সিজেন সেবা  আশুগঞ্জে র‍্যাবের অভিযানে এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ ব্রিগেডকে অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছেন ব্যবসায়ী-প্রবাসী সরাইলে অবৈধ বিদ্যুৎ ব্যবহারে ৫০ লাখ টাকা জরিমানা আদায়  মাওলানা  মোবারক হোসাইন দোয়ানী পীর সাহেব আর নেই
আ’লীগের লেবাস ধরে দলের সাথে যারা বেঈমানী করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে ; মোকতাদির চৌধুরী এমপি

আ’লীগের লেবাস ধরে দলের সাথে যারা বেঈমানী করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে ; মোকতাদির চৌধুরী এমপি


স্টাফ রিপোর্টার, সময়নিউজবিডি 

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি বলেছেন, আমি আজকে দুঃখ ভারাক্রান্ত মন নিয়ে আসলাম উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন উদ্বোধন করতে। নিশ্চয় এর কারনও আপনারা জানেন। আওয়ামীলীগ সরকার বিজয়নগর উপজেলার এতো উন্নয়ন কাজ করার পরও যদি আওয়ামীলীগের প্রার্থী পরাজিত হয় তাহলে দুঃখ পাওয়া ছাড়া কি আর পাওয়ার কথা। 

রবিবার (২৮ জুলাই) দুপুর ১২ টায় বিজয়নগর উপজেলার চম্পকনগরে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন এর শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।     

বিগত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর ভরাডুবিতে দলের ভেতরে কিছু কুলাঙ্গার ও মুনাফেক দায়ী বলে উল্লেখ করে উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি বলেন, আগামী সেপ্টেম্বর মাসে উপজেলা আওয়ামীলীগের কাউন্সিল করবো। কাউন্সিলে আওয়ামীলীগের ভেতরে যেসব কুলাঙ্গার ও দুষ্টু লোক রয়েছে তাদেরকে দল থেকে বের করে দেওয়া হবে। আওয়ামীলীগের লেবাস ধরে দলের সাথে যারা বেঈমানী করবে তাদের সহ্য করা হবেনা। দলে থেকে দলের সাথে যারা বেঈমানী ও মুনাফেকি করেছেন তাদেরকে আমি চিনি। আমি এখনি তাদের নাম বলতে পারি। কিন্তু নাম বলছিনা, শুধু সতর্ক করে বলে দিচ্ছি আপনারা সাবধান হয়ে যান, আপনার দল থেকে দূরে থাকবেন।

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন এর শুভ উদ্বোধন শেষে মোনাজাত করছেন প্রধান অতিথি ও অন্যান্য অতিথিগন

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মেহের নিগারের সভাপতিত্বে মোকতাদির চৌধুরী এমপি আরো বলেন, একটি গনতান্ত্রিক আদর্শিক রাষ্ট্র গঠনের লক্ষ্যেই জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে মহান মুক্তিযুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধারা দেশ স্বাধীন করতে যুদ্ধ করেছিল।   

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মোঃ তারা মিয়া।   

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি’র হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দিচ্ছেন ইউএনও মেহের নিগার।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ মাজহারুল হুদা, মৎস্য কর্মকর্তা আবু সালেহ, সমবায় কর্মকর্তা আব্দুল কুদ্দুস ভুইয়া, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোঃ নুর মাহমুদ, সমাজ সেবা কর্মকর্তা আফরোজা বেগম, উপজেলা প্রকৌশলী জামাল উদ্দিন, পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা আব্দুল কাদির, সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আবু হুরায়রাহ, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর মৃধা, চম্পকনগর ইউপি চেয়ারম্যান হামিদুল হক হামদু, উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক হাজী মোঃ রাসেল খান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ এনামুল হক সহ আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী এবং বীর মুক্তিযোদ্ধারা।

মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আল মামুন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন  উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান নাছিমা মুকাই আলী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ সদস্য জহিরুল ইসলাম ভুইয়া, জেলা পরিষদের সদস্য সৈয়দা নাখলু আকতার, ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদুর রহমান মান্না, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাবিত্রী রানী দাস।

এদিকে অনুষ্ঠানের শুরুতেই প্রধান অতিথি হিসেবে র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি অন্যান্য অতিথিদের সাথে নিয়ে নব নির্মিত উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন এর শুভ উদ্বোধন করেন। এসময় স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথিকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানাচ্ছেন নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান নাছিমা মুকাই আলী ও ইউএনও মেহের নিগার।

অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেহের নিগার প্রধান অতিথি র.আ.ম.উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপির ব্যক্তিগত, পারিবারিক, রাজনৈতিক ও কর্ম জীবনের একটি সংক্ষিপ্ত বিবরণ পাঠ করেন যার ভিডিও চিত্র প্রজেক্টেরের মাধ্যমে উপস্থিত দর্শকদের সামনে তুলে ধরা হয়। এসময় প্রধান অতিথিকে সম্মাননা স্মারক ক্রেস্ট তুলে দেন অন্যান্য অতিথিরা।                                        

অনুষ্ঠানে উপস্থিত দর্শকদের একাংশ।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত দর্শকদের একাংশ।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে ২ কোটি ২১ লক্ষ টাকা ব্যয়ে চার তলা বিশিষ্ট উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ করা হয়। ভবনটির নির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন করেন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স মোস্তফা কামাল।          


ইনাম/সময়নিউজবিডি টুয়েন্টিফোর।   

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Somoynewsbd24.Com